বাংলা নিউজ > ময়দান > স্টার্কের বল তো দেখতেই পাইনি, অশ্বিনকে জানালেন নটরাজন

সিডনি টেস্টে পিঠের অসম্ভব ব্যথাকে উপেক্ষা করে বিহারীকে সঙ্গে নিয়ে বুক চিতিয়ে লড়াই করে ম্যাচটা বাঁচিয়ে অদম্য এক জেদের কাহিনি রচনা করার পরে সেই চোটের কারণেই ব্রিসবেন টেস্ট থেকে ছিটকে যেতে হয়েছিল রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে। ব্রিসবেনে ভারতের বোলিং আক্রমণ একেবারে নবাগত। তবে বল হাতে সেই তরুণরাই কামাল করে দেখিয়েছেন। দুটি ইনিংসেই অল আউট হয়ে গিয়েছে অজিরা। 

অজিদের প্রথম ইনিংসে যেমন বল হাতে সাফল্য পেয়েছেন অভিষেককারী নটরাজন তেমন ব্যাট হাতে সাফল্য পেয়েছেন শার্দুল ঠাকুর।  দ্বিতীয় ইনিংসে বল হাতেও চার উইকেট নিয়েছেন শার্দুল। তবে তার আগে  তৃতীয় দিনের খেলা শেষে বিসিসিআইয়ের টিভির হয়ে প্রশ্নকর্তার ভূমিকায় অবতীর্ণ হন ভারতের সিডনি টেস্টের নায়ক অশ্বিন।সঞ্চালকের ভূমিকায় চতুর্থ টেস্টের তৃতীয় দিনের শেষে বিসিসিআই টিভির জন্য ওয়াশিংটন সুন্দর, শার্দুল ঠাকুর ও টি নটরাজনের সাক্ষাৎকার নেন অশ্বিন।

 

ভারতের প্রথম ইনিংসে শার্দুল ঠাকুরের প্রথম রান আসে প্যাট কামিন্সের শর্ট বলে ছয় মেরে। এই বিষয়টি নিয়ে তাকে অশ্বিনের করা প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান 'প্রথম রানটা ওভাবে করতে পারব একেবারেই ভাবিনি। বলটা দেখে শটটা খেলেছি। তবে, আমি খুব খুশি।’ শার্দুলের অর্ধশতরান ও আসে ছয় মেরেই। সেসময়ে নন স্ট্রাইকিং এন্ডে দাঁড়ানো ওয়াশিংটন সুন্দরকে এই ব্যাপারে অশ্বিন প্রশ্ন করলে সুন্দর জানান ‘পঞ্চাশে রানে পৌঁছতে উদগ্রীব ছিল শার্দুল। আমি বুঝতে পারছিলাম ও এরকম কিছু একটা করবে।’ ভিভ রিচার্ডসের মতো কভার ড্রাইভ মারা প্রসঙ্গে শার্দুল বলেন, ‘আমি আগে কভার ড্রাইভ প্র্যাকটিস করিনি। তবে নেটে ভাল ব্যাট করছিলাম। ফলে সুযোগ হাতছাড়া করতে চাইনি।’

নটরাজনের কাছ থেকে অশ্বিন জানতে চান গোটা একটা স্টার্কের ওভারে নট আউট থাকার অভিজ্ঞতার ব্যাপারে জানাতে। বা হাতি পেসারের সরল স্বীকারোক্তি ' আমি ওর প্রথম বলটা চোখে দেখতেই পাইনি।' টেস্ট অভিষেক সম্বন্ধে ওয়াশিংটন সুন্দর জানান ' ভাল খেলতে পেরে আমি খুশি । পরিবারের সকলের থেকে খুব সাহায্য পেয়েছি। আমি ভাগ্যবান।’

 

বন্ধ করুন