ATK-র স্প্যানিশ মিডফিল্ডার এডু গার্সিয়া। ছবি- টুইটার।
ATK-র স্প্যানিশ মিডফিল্ডার এডু গার্সিয়া। ছবি- টুইটার।

দেশে ফিরেছেন এক মাস আগে, এখনও বাবা-মা'র মুখ দেখেননি ATK-র স্প্যানিশ তারকা

  • আপাতত স্ত্রী ও ৮ মাসের শিশুকন্যাকে নিয়েই হোম কোয়ারান্টাইনে সময় কাটছে ATK-র তারকা মিডফিল্ডারের।

ISL শেষে হয়েছে একমাস আগে। ATK-কে চ্যাম্পিয়ন করে দেশে ফিরেছেন স্প্যনিশ মিডফিল্ডার এডু গার্সিয়া। তবে এখনও বাবা-মা ও বন্ধু পরিজনের মুখ দেখতে পাননি তিনি।

বিষয়টাকে অত্যন্ত যন্ত্রণাদায়ক বলে বর্ণনা করেন ATK-র তারকা ফুটবলার। আসলে করোনা মহামারির জেরে স্পেনে সম্পূর্ণ লকডাউন চলায় তিনি নিজে যেমন বাড়ির বাইরে বেরোতে পারেননি। পরিবারের বাকিরাও তেমনই আসতে পারেননি জারাগোজায় তাঁর বাড়িতে। আপাতত স্ত্রী ও ৮ মাসের শিশুকন্যাকে নিয়েই হোম কোয়ারান্টাইনে সময় কাটছে গার্সিয়ার।

ISL ফাইনালে গোল করা তারকা ফুটবলার টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানান, স্পেনের বাকি অঞ্চলগুলির তুলনায় জারাগোজায় করোনার প্রকোপ তুলনায় কম। তবু সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে সেখানে সম্পূর্ণ লকডাউন চলছে। তাঁরা সরকারি নির্দেশিকা মেনে বাড়ির বাইরে বেরোচ্ছেন না। তবে দীর্ঘ সময় পর বাড়ি ফিরে যদি পরিবারের লোকজনের দেখা না মেলে, তখন মন খারাপ হওয়া স্বাভাবিক।

এডুর কথায়, 'এটা সত্যিই অত্যন্ত কঠিন পরিস্থিতি। যখন আপনি ফুটবল মরশুমের জন্য দেশ থেকে, পরিবার-পরিজনের থেকে দীর্ঘদিন দূরে থাকেন, তখন ফিরে আসার পর সবার সঙ্গে সময় উপভোগ করতে চাওয়াই স্বাভাবিক। আমি একমাস আগে বাড়ি ফিরেছি, তবে এখনও বাব-মা ও বন্ধুদের মুখ দেখতে পাইনি। স্ত্রী ও কন্যার সঙ্গেই সময় কাটছে। আমরা পরিবারের সঙ্গে দেখা করার জন্য মুখিয়ে রয়েছি।'

কীভাবে বাড়িতে সময় কাটাচ্ছেন, সে সম্পর্কেও স্পষ্ট একটা ধারণা দেন গার্সিয়া। তিনি বলেন, 'আমাদের একটা শিশুসন্তান রয়েছে। তাই কাজের অভাব নেই। এছাড়া আমরা ওয়েব সিরিজ দেখি। আমি বরাবরই রান্না করতে ভালোবাসি। এই ফাঁকে রান্নার শখটাও মিটিয়ে নিচ্ছি। বাড়িতে শরীরচর্চাও করি। এটা শুধু শরীরই নয়, মন ভালো থাকতেও সাহায্য করে।'

বন্ধ করুন