খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন শুভাশীষ। ছবি- টুইটার।
খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন শুভাশীষ। ছবি- টুইটার।

লকডাউনে রোজগারহীন দিনমজুরদের হাতে প্রতিদিন খাবার তুলে দিচ্ছেন জাতীয় দলের বাঙালি ফুটবলার

  • দক্ষিণ ২৪ পরগনার সুভাষগ্রামে নিজের বাড়ির সামনে করোনা পীড়িত মানুষদের অত্যন্ত প্রসন্নতার সঙ্গে খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেট বিতরণ করতে দেখা যায় ভারতীয় ফুটবলারকে।

ISL মরশুম শেষ হতেই জামসেদপুর এফসি'র সিকে বিনীত কেরলে গিয়ে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে যোগ দিয়েছেন করোনা কল সেন্টারে। এবার ভারতীয় ফুটবল দলের তারকা ডিফেন্ডার শুভাশীষ বোস কঠিন সময়ে আর্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে এলেন। মুম্বই সিটির লেফট ব্যাক বেশ কিছুদিন ধরেই নিজের জেলায় করোনা পীড়িতদের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দিচ্ছেন।

দক্ষিণ ২৪ পরগনার সুভাষগ্রামে শুভাশীষের বাড়ির সামনে রোজ সকালে লম্বা লাইন দেখা যায়। এলাকার দিনমজুর, রিক্সাচালক, হকারদের মতো মানুষ, লকডাউনের ফলে যাঁদের রুজি-রুটি গিয়েছে বন্ধ হয়ে, তাঁদেরকেই দেখা যায় এই লাইনে। অপর প্রান্তে অত্যন্ত প্রসন্নতার সঙ্গে খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেট বিতরণ করতে দেখা যায় ভারতীয় ফুটবলারকে। প্যাকেটে চাল, ডাল, আলু, পেঁয়াজের মতো প্রাথমিক খাদ্য দ্রব্য থাকে।

শুভাশীষ বলেন, 'ছোটবেলা থেকে যখন খেলতে যেতাম, আবার খেলে ফিরে আসতাম, এই রিক্সাওয়ালারা আমার থেকে টাকা নিত না। যেদিন ভালো খেলতাম, হকাররা বিনা পয়সায় আমাকে খাবার দিয়েছে উপহার হিসেবে। এখন সময় এসেছে এইসব মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর। আমি নিজে যতটুকু পারছি করছি। সবাইকে অনুরোধ, আপনারা সবাই নিজেদের সাধ্য মতো দুস্থ মানুষজনকে সাহায্য করুন। কেননা, লকডাউনে এই দিন এনে দিন খাওয়া মানুষেরাই সব থেকে বেশি কষ্ট পাচ্ছে।'

শুভাশীষ আরও বলেন, 'ছোটবেলা থেকে যে মুখগুলো দেখে বড় হয়েছি, প্রয়োজনের সময় তাঁদের জন্য কিছু করতে পেরে ভালো লাগছে। এমন সংকটের সময়ে এই মানুষগুলোর থেকে দূরে থাকা সম্ভব ছিল না।'

বন্ধ করুন