IPL ফ্র্যাঞ্চাইজি সানরাইজার্স হায়দরাবাদের লোগো।
IPL ফ্র্যাঞ্চাইজি সানরাইজার্স হায়দরাবাদের লোগো।

Covid-19: করোনা ত্রাণে ১০ কোটি IPL ফ্র্যাঞ্চাইজি সানরাইজার্স হায়দরাবাদের

  • জীবেনর বাইশগজে করোনা মহামারীর বিরুদ্ধে ব্যাট ধরার সিদ্ধান্ত নিল ২০১৬-র ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগ চ্যাম্পিয়নরা।

চলতি বছরে IPL অনুষ্ঠিত হওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিলেও মাঠে নেমে পড়ল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। জীবেনর বাইশগজে করোনা মহামারীর বিরুদ্ধে ব্যাট ধরার সিদ্ধান্ত নিল ২০১৬-র ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগ চ্যাম্পিয়নরা।

করোনা মোকাবিলায় সক্রিয় অংশগ্রহণের কথা এর আগে জানিয়ে দিয়েছে কিংস ইলেভেন পঞ্জাব ও কলকাতা নাইট রাইডার্স। এবার সেই পথেই পা বাড়ানোর কথা ঘোষণা করা হল হায়দরাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজির তরফে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সানরাইজার্সের পক্ষ থেকে জানানো হয়, 'সান টিভি গ্রুপ করোনা ত্রাণে ১০ কোটি টাকা খরচ করতে চলেছে।'

ফ্র্যাঞ্চাইজির এমন সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছেন সানরাইজার্স অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার। টুইটারে তিনি লেখেন, 'ভীষণ ভালো সিদ্ধান্ত এটা। ওয়েল ডান সান টিভি গ্রুপ।'

IPL ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলি ছাড়াও ভারতের ক্রিকেটমহল করোনা মোকাবিলায় অগ্রণী ভূমিকা পালণ করেছে। BCCI প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে ৫১ কোটি টাকা দিয়েছে। ব্যক্তিগতভাবে সচিন তেন্ডুলকর ৫০ লক্ষ, সুনীল গাভাসকর ৫৯ লক্ষ, রোহিত শর্মা ৮০ লক্ষ, সুরেশ রায়না ৫২ লক্ষ, যুবরাজ সিং ৫০ লক্ষ টাকা দিয়েছেন। বিরাট কোহলি অর্থিক অনুদান দিলেও টাকার পরিমাণ জানা যায়নি।

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ৫০ লক্ষ টাকার চাল দিয়েছেন করোনা ত্রাণে। গৌতম গম্ভীর সাংসদ তহবিলের অর্থ ছাড়াও ২ বছরের বেতন দান করেছেন। এছাড়া অজিঙ্কা রাহানে, চেতেশ্বর পূজারা, কেদার যাদব, অনিল কুম্বলে, জয়দেব উনাদকাট, মিতালি রাজ, দীপ্তি শর্মা, রিচা ঘোষরা মহামারীর মোকাবিলায় এগিয়ে এসেছেন।

বন্ধ করুন