বাড়ি > ময়দান > পজিটিভ, নেগেটিভ এবং আবার পজিটিভ, পাক ক্রিকেটে রহস্য গল্পের নাম হাফিজের করোনা রিপোর্ট
মহম্মদ হাফিজ। ছবি- এএফপি।
মহম্মদ হাফিজ। ছবি- এএফপি।

পজিটিভ, নেগেটিভ এবং আবার পজিটিভ, পাক ক্রিকেটে রহস্য গল্পের নাম হাফিজের করোনা রিপোর্ট

  • পাক অল-রাউন্ডারের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ আনতে পারে PCB।

মহম্মদ হাফিজকে নিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেটে কার্যত বিরক্তির আবহ তৈরি হয়েছে। সিনিয়র পাক অল-রাউন্ডারের করোনা রিপোর্ট নিয়ে যে রকম ধোঁয়াশা দেখা দিয়েছে, তা সমর্থকদের কাছে রহস্য মনে হওয়াই স্বাভাবিক। একই সঙ্গে পাক বোর্ডের ভূমিকাকেও প্রশ্নের মুখে ফেলে দিচ্ছে হাফিজের আচরণ।

গত মঙ্গলবার পাকিস্তান বোর্ডের তরফে জানানো হয় হাফিজের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ। ঠিক পরের দিনই হাফিজ নিজে জানান যে, তিনি এবং তাঁর পরিবারের কেউই করোনা আক্রান্ত নন। এক্ষেত্রে প্রমাণ হিসাবে ব্যক্তিগত উদ্যোগে করোনা টেস্টের মেডিক্যাল রিপোর্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় পেশ করেন পাক তারকা।

স্বাভাবিকভাবেই পাকিস্তান বোর্ডের করোনা টেস্টের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। যদিও পাক বোর্ড হাফিজের দাবিকে স্বীকৃতি দেয়নি। তারা পুনরায় হাফিজের লালা রস পরীক্ষার জন্য পাঠায় শওকত খানুম মেমোরিয়াল হাসপাতালে, যেখানে প্রথম দফায় ক্রিকেটারদের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল। দ্বিতীয় দফার পরীক্ষাতেও হাফিজকে পজিটিভ বলে ঘোষণা করা হয় রিপোর্টে।

এক্ষেত্রে হাফিজ পিসিবির ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করেছেন বলে দাবি উঠতে থাকে পাক ক্রিকেটমহলে। একে তো করোনা পজিটিভ হওয়ায় ইংল্যান্ড সফরে মাঠে নামা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে হাফিজের। তার উপর বোর্ড কর্তারাও রীতিমতো অসন্তুষ্ট হাফিজ সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যক্তিগত করোনা টেস্টের রিপোর্ট প্রকাশ করে পিসিবিকে ভুল প্রমাণের চেষ্টা করায়। বোর্ড কর্তাদের একাংশ হাফিজের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ আনার দাবি তুলেছেন ইতিমধ্যেই।

শনিবারই সমস্ত ক্রিকেটারদের দ্বিতীয় টেস্টের রিপোর্ট হাতে পাবে পিসিবি। যদি সেখানেও হাফিজকে করোনা পজিটিভ ঘোষণা করা হয়, তবে তাঁর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে পারে পিসিবি।

সেক্ষেত্রে তাঁর ইংল্যান্ড সফরে যাওয়াও অনিশ্চিত হয়ে পড়বে। পাক নির্বাচকরা দ্বিতীয় রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর রিজার্ভ ক্রিকেটারদের মধ্য থেকে করোনা আক্রান্তদের পরিবর্ত বেছে নেবেন এবং তাঁদের নিয়েই ইংল্যান্ড উড়ে যাবে পাকিস্তান দল।

বন্ধ করুন