ভিডিও কনফারেন্সে সচিনের সঙ্গে কথা বলছেন মোদী।
ভিডিও কনফারেন্সে সচিনের সঙ্গে কথা বলছেন মোদী।

করোনা মোকাবিলায় দেশবাসীকে প্রধানমন্ত্রীর ৫ মন্ত্রে দীক্ষিত করবেন সচিনরা

  • দেশকে গৌরব এনে দেওয়া খেলোয়াড়দের এবার দেশবাসীর মনোবল বাড়ানোর জন্য সামনে আসার অনুরোধ জানান মোদী।

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে দেশবাসীকে পাঁচ মন্ত্রে দীক্ষিত করার জন্য প্রথমসারির ক্রীড়াবিদদের অনুরোধ জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মহামারীর মোকাবিলায় দেশের ক্রীড়ামহল শুরু থেকেই সরকারের পাশে রয়েছে। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে সংকটের মেঘ যত ঘনীভূত হচ্ছে, ভারতবাসীর একযোগে লড়াইয়ের প্রয়োজনীয়তা তত বেশী অনুভূত হচ্ছে।

প্রচেষ্টায় খামতি নেই সরকারি তরফে। ইতিমধ্যেই দেশজুড়ে ২১ দিনের লকডাউন চলছে। সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং বজায় রাখা ও বাড়ির বাইরে না বেরনোর ক্রমাগত অনুরোধ জানানো হচ্ছে সর্বস্তরের মানুষের কাছে। তা সত্ত্বেও সম্পূ্র্ণ সাড়া মিলছে না করোনার ভয়াবহতা সকলে অনুধাবন করতে পারছেন না বলে।

এই অবস্থায় দেশের ক্রীড়ামহলকে পাশে চাইলেন প্রধানমন্ত্রী। মাঠের লড়াইয়ে সারা দেশকে একজোট করার নজির রয়েছে দেশের প্রথম সারির ক্রীড়াবিদদের। দেশকে গৌরব এনে দেওয়া এই সব খেলোয়াড়দের এবার দেশবাসীর মনোবল বাড়ানোর জন্য সামনে আসার অনুরোধ জানান নরেন্দ্র মোদী।

শুক্রবার দেশের ৪৯জন ক্রীড়াব্যক্তিত্বের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানেই তিনি পাঁচ মন্ত্রের কথা উল্লেখ করেন। দেশবাসীকে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে উদ্বুদ্ধ করতে ক্রীড়াবিদদের হাতিয়ার হিসেবে সংকল্প, সংযম, সকারাত্মকতা, সম্মান ও সহযোগ, এই পাঁচ মন্ত্র তুলে দেন মোদী।

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সকলকে দৃঢ়সংকল্প হতে হবে। সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং বজায় রাখার ক্ষেত্রে দেখা হবে সংযম। ইতিবাচক মানসিকতা বজায় রাখতে হবে। করোনা যুদ্ধে যাঁরা সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন, তাঁদের লড়াইকে সম্মান জানাতে হবে। মহামারীর মোকাবিলায় সরকারের হাত শক্ত করতে PM csres fund-এ সাধ্য মতো সহযোগিতা করতে হবে। এই পাঁচটি বিষয়ই সোশ্যাল মিডিয়ায় অনুরাগীদের মধ্যে ছড়িয়ে দেবেন সচিনরা।

বন্ধ করুন