সংকটের সময় দেশবাসীর পাশে সচিন। ছবি- পিটিআই। (PTI)
সংকটের সময় দেশবাসীর পাশে সচিন। ছবি- পিটিআই। (PTI)

Covid-19: লকডাউনে অসহায় মুম্বইবাসী, ফের পাশে দাঁড়ালেন সচিন

  • দেশজোড়া লকডাউনে সাধারণ মানুষের প্রাথমিক চাহিদাগুলিই যখন পূরণ হওয়া দুষ্কর হয়ে দাঁড়িয়েছে, তখন আরও একবার মহামারীর বিরুদ্ধে মাঠে নামলেন সচিন।

করোনা মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই সরকারি তহবিলে ৫০ লক্ষ টাকা অনুদান দিয়েছেন সচিন তেন্ডুলকর। তবে দেশবাসীর প্রয়োজনের সময় ওটুকুতেই দায় সারতে রাজি ছিলেন না মাস্টার ব্লাস্টার। দেশজোড়া লকডাউনে সাধারণ মানুষের প্রাথমিক চাহিদাগুলিই যখন পূরণ হওয়া দুষ্কর হয়ে দাঁড়িয়েছে, তখন আরও একবার মহামারীর বিরুদ্ধে মাঠে নামলেন সচিন।

আপনালয় নামক এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার মাধ্যমে সচিন মুম্বইয়ের ৫ হাজার মানুষের এক মাসের খাদ্যসামগ্রীর দায়ভার তুলে নেন নিজের কাঁধে। সেচ্ছাসেবী সংস্থাই সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর জানায়।

আপনালয়ের তরফে টুইট করে জানানো হয়, 'লকডাউনের সময় যাঁরা সব থেকে বেশি কষ্ট পাচ্ছে, তাঁদের সাহায্যের জন্য আপনালয়ের পাশে দাঁড়ানোয় সচিন তেন্ডুলকরকে ধন্যবাদ। উনি ১ মাসের জন্য ৫ হাজার মানুষের খাদ্যসামগ্রীর দায়িত্ব নিয়েছেন।'

পরে সচিনও সংকটের মুহূর্তে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার এভাবে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর প্রশংসা করেন টুইটারে। তিনি লেখেন, 'পীড়িত মানুষের সেবায় নিয়োজিত আপনালয়কে আমার শুভেচ্ছা। ভালো কাজে এভাবেই এগিয়ে যাও।'

এর আগে তেন্ডুলকর প্রধানমন্ত্রীর আপৎকালীন তহবিলে ২৫ লক্ষ টাকা ও মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ২৫ লক্ষ টাকা অনুদান দেন।

সচিনের ওপেনিং পার্টনার সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় একইভাবে ইসকনের মাধ্যমে লকডাউনের সময় কলকাতার ১০ হাজার মানুষের অন্নের ব্যবস্থা করেছেন। এছাড়া বাংলার করোনা পীড়িতদের মধ্যে ৫০ লক্ষ টাকার চাল বিতরণ করেছেন মহারাজ।

বন্ধ করুন