বাড়ি > ময়দান > করোনা মোকাবিলায় ৫০ লাখ সচিনের
করোনাকে বাউন্ডারির বাইরে ফেলার লড়াইয়ে সামিল সচিন। ছবি- পিটিআই (PTI)
করোনাকে বাউন্ডারির বাইরে ফেলার লড়াইয়ে সামিল সচিন। ছবি- পিটিআই (PTI)

করোনা মোকাবিলায় ৫০ লাখ সচিনের

  • আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের মালিক একই সঙ্গে রাজ্য সরকার ও কেন্দ্রীয় সরকারের তহবিলে জমা দিলেন সম পরিমাণ অর্থ।

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে শুরু থেকেই দেশবাসীর পাশে ছিলেন সচিন তেন্ডুলকর। মহামারীর মোকাবিলায় এবার আরও একবার ব্যাট ধরলেন মাস্টার ব্লাস্টার। প্রয়োজনের সময় সরকারের হাত শক্ত করতে বড় অঙ্কের আর্থিক অনুদান দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন সচিন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের মালিক একই সঙ্গে রাজ্য সরকার ও কেন্দ্রীয় সরকারের তহবিলে জমা দিলেন সম পরিমাণ অর্থ। তেন্ডুলকর প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে দিয়েছেন ২৫ লক্ষ টাকা। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে তিনি জমা দিয়েছেন ২৫ লক্ষ। অর্থাৎ করোনার মোকাবিলায় দুই তহবিল মিলিয়ে মোট ৫০ লক্ষ টাকা অনুদান দেন লিটল মাস্টার।

করোনা মোকাবিলায় কোনও ভারতীয় ক্রীড়াবিদের দেওয়া এটাই এখনও পর্যন্ত সব থেকে বড় অঙ্কের অনুদান। সরাসরি অর্থিক অনুদান না দিলেও সচিনের ওপেনিং পার্টনার সৌরভ ৫০ লক্ষ টাকার চাল করোনা পীড়িত মানুষের মধ্যে বিতরণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এর আগে ব্যাডমিন্টন তারকা পিভি সিন্ধু অন্ধ্রপ্রদেশ ও তেলেঙ্গানা, দুই রাজ্যের তহবিলে ৫ লক্ষ করে মোট ১০ লক্ষ টাকা অনুদান দিয়েছেন। বজরং পুনিয়া ও হিমা দাস তাঁদের মাসিক মাইনের কিছু অংশ দান করার কথা ঘোষণা করেছেন।

ইরফান ও ইউসুফ পাঠান বরোদার স্বাস্থ্য দফতর ও বরোদা পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন ৪ হাজার ফেস মাস্ক। পুণের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা মারফৎ মহেন্দ্র সিং ধোনি ১ লক্ষ টাকা খরচ করেছেন করোনা মোকাবিলায়। বাংলার ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন মুখ্যমন্ত্রীর আপৎকালীন তহবিলে ২৫ লক্ষ টাকা অনুদান দিয়েছে। সৌরভের দাদা স্নেহাশীষ গঙ্গোপাধ্যায় নিজে ১ লক্ষ টাকা দিয়েছেন এবং তাঁর ক্রিকেট অ্যাকাডেমি দিয়েছে ৫০ হাজার টাকা।

বন্ধ করুন