বাড়ি > ময়দান > Covid-19: করোনা নিয়ন্ত্রণে সরকারি নির্দেশ অমান্য করে নির্বাসিত ৬ ফুটবলার
প্রতীকী ছবি।
প্রতীকী ছবি।

Covid-19: করোনা নিয়ন্ত্রণে সরকারি নির্দেশ অমান্য করে নির্বাসিত ৬ ফুটবলার

  • দোষী ফুটবলারকে শাস্তি দেবে তাঁদের ক্লাবও।

করোনা মহামারি নিয়ন্ত্রণে সব দেশের সরকার পরিস্থিতি অনুযায়ী একাধিক নির্দেশিকা জারি করেছে। বিধি-নিষেধ চাপানো হয়েছে বিস্তর। নিয়মের তোয়াক্কা না করে বিধি-নিষেধ অমান্য করার ছবিও ইতিমধ্যেই চোখে পড়েছে। 

শুধু সাধারণ মানুষের মধ্যেই নয়, এমন প্রবণতা দেখা গিয়েছে খেলোয়াড়দের মধ্যেও। বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে নিয়ম ভেঙে শাস্তির মুখে পড়তে হয়েছে খেলোয়াড়দের।

লকডাউনের মাঝে গাড়ি নিয়ে ব্যাঙ্ক থেকে ফেরার সময় জরিমানা দিতে হয় ভারতীয় ক্রিকেটার ঋষি ধাওয়ানকে। শ্রীলঙ্কান পেসার শেহান মদুশঙ্কা লকডাউনে গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে আটক হন। তাঁর কাছে মাদক দ্রব্য মেলায় পরে গ্রেফতার হন তিনি। 

এবার চিনে মহামারি রোধে জারি হওয়া কার্ফু ভেঙে মাঝরাতে বাইরে বেরোনোয় ৬ মাসের জন্য নির্বাসিত হতে হল অনূর্ধ্ব-১৯ জাতীয় দলের ৬ জন ফুটবলারকে।

গত ১৭ মে থেকে সাংহাইয়ে ৩৫ জন ফুটবলারকে নিয়ে চিনের অনূর্ধ্ব-১৯ জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরু হয়। এই ক্যাম্প শেষ হয় গত শনিবার। ক্যাম্পের ৬ জন ফুটবলার অনুমতি ছাড়াই মাঝরাতে মদ্যপানের জন্য বাইরে যেতেন। একাধিকবার ঘটে এই ঘটনা, যার নেতিবাচক প্রভাব পড়ে দলের উপর।

চিনা ফুটবল সংস্থা ৬ ফুটবলারকে ৬ মাসের জন্য নির্বাসিত করে। আগামী ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত কোনও ম্যাচে মাঠে নামতে পারবেন না এই ৬ ফুটবলার। শুধু জাতীয় দলেই নয়, সংশ্লিষ্ট ফুটবলারদের শাস্তি দেবে তাঁদের ক্লাবও।

চিনের অনূর্ধ্ব-১৯ জাতীয় দল প্রস্তুতি নিচ্ছে টোকিও অলিম্পিকের জন্য। করোনার জেরে চলতি বছরের অলিম্পিক গেমস এক বছরের জন্য পিছিয়ে গিয়েছে। আগামী বছর অনুষ্ঠিত হবে টোকিও অলিম্পিক।

বন্ধ করুন