এবছরের মতো পরিত্যক্ত দ্য চ্যাম্পিয়নশিপ। ছবি- এএফপি। (AFP)
এবছরের মতো পরিত্যক্ত দ্য চ্যাম্পিয়নশিপ। ছবি- এএফপি। (AFP)

২৫০ কোটি বিমার প্রিমিয়াম দিয়ে টুর্নামেন্ট বাতিল হওয়ায় চারগুণ টাকা পাচ্ছে উইম্বলডন

  • দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এই প্রথমবার করোনা মহামারীর জন্য বাতিল হয়েছে উইম্বলডন।

১৭ বছর ধরে যে আশঙ্কায় বিমার টাকা জমা দিয়ে গিয়েছে অল ইংল্যান্ড লন টেনিস ক্লাব, অবশেষে সেই আশঙ্কা সত্যি প্রমাণিত হওয়ায় ক্ষতিপূরণ বাবদ মোটা অঙ্কের টাকা বিমা সংস্থার কাছ থেকে ফেরত পাচ্ছে তারা।

করোনা মহামারির জেরে বাতিল হয়েছে চলতি মরশুমের উইম্বলডন। স্বাভাবিকভাবেই আর্থিক দিক দিয়ে বিপুল ক্ষতির মুখে পড়তে হবে আয়োজকদের। টুর্নামেন্টের বিমার শর্তে মহামারিও যুক্ত থাকায় কিছুটা হলেও ক্ষতি পুষিয়ে যাবে অল ইংল্যান্ড লন টেনিস ক্লাবের।

উইম্বলডন সম্ভবত বিশ্বের একমাত্র স্পোর্টস ইভেন্ট, যেটা মহামারীর জন্য দীর্ঘদিন ধরে বিমার আওতায় রয়েছে। বছরে ২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয়োজকরা খরচ করে বিমার পিছনে। অর্থাৎ ১৭ বছরে মোট ৩৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার তাদের দিতে হয়েছে বিমা সংস্থাকে। ভারতীয় মুদ্রায় এর পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ২৫৮ কোটি টাকা।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এই প্রথমবার করোনা মহামারির জন্য বাতিল হয়েছে উইম্বলডন। ফলে অল ইংল্যান্ড লন টেনিস ক্লাব ক্ষতিপূরণ পাচ্ছে ১৪১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১০৭০ কোটি টাকা ফেরত পাবে উইম্বলডনের আয়োজকরা।

যদিও তাতে পুরোপুরি ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়া সম্ভব হবে না AELTC-র। এবছর টুর্নামেন্ট থেকে তাদের আয় হওয়ার কথা ছিল ৩১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। পুরস্কার মূল্য বাদ দিলে মোট ক্ষতির প্রায় অর্ধেক বিমার টাকা থেকে পূরণ হয়ে যাবে তাদের।

বন্ধ করুন