লকডাউনের মাঝেই শুরু WWE-র রেকর্ডিং।
লকডাউনের মাঝেই শুরু WWE-র রেকর্ডিং।

খাদ্য ও ওষুধের মতোই 'জরুরি' WWE, লকডাউনের মাঝেই মার্কিন মুলুকে শুরু রেকর্ডিং

  • ফ্লোরিডায় করোনা সংক্রমণ এড়াতে সবাইকে বাড়ির ভিতরে থাকার নির্দেশ দেওয়া হলেও WWE-র লড়াই রেকর্ডিংয়ের অনুমতি দেওয়া হয়েছে সরকারি তরফে।

করোনা মহামারির জেরে লকডাউনে গৃহবন্দি মানুষের বেঁচে থাকার জন্য প্রয়োজন খাদ্য, জল, ওষুধ ও WWE। শুনতে অবাক লাগলেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ঠিক এভাবেই অত্যাবশ্যিক বিষয় হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে WWE শো-কে। সেকারণেই লকডাউনের মাঝে সাধারণ মানুষের যেখানে বাইরে বেরোনো নিষেধ, সেখানে WWE-র লাইভ বাউট রেকর্ডিংয়ের অনুমতি দেওয়া হল সরকারি তরফে।

ফ্রোরিডায় WWE-কে খাদ্য, পানীয় ও ওযুধের মতোই প্রয়োজনীয় বিষয় হিসেবে দেখা হচ্ছে। তাই গোটা ফ্লোরিডায় যেখানে করোনা সংক্রমণ এড়াতে সবাইকে বাড়ির ভিতরে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, সেখানে WWE-র লড়াই রেকর্ডিংয়ের অনুমতি দেওয়া হয়েছে ওয়ার্ল্ড রেসলিং এন্টারটেনমেন্ট কর্তৃপক্ষকে।

অরেঞ্জ কাউন্টির মেয়র জেরি ডেমিংস এ-প্রসঙ্গে বলেন, 'প্রাথমিকভাবে WWE-কে জরুরি বিষয় বলে মনে করা হয়নি। তবে পরে সরকারি তরফে সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করা হয়। গভর্নরের অফিসের সঙ্গে কয়েক দফায় আলোচনার পর WWE আবশ্যিক বিষয় হিসেবে চিহ্নিত হয়। তার পরেই অনুমতি দেওয়া হয়েছে নতুন শো রেকর্ড করার।'

গত ৯ এপ্রিল ফ্লোরিডার গভর্নর রন ডিস্যান্তিস অনুমতি দেন WWE-র কার্যক্রম পুনরায় চালু করার। যদিও বাকি সবকিছুর উপরে আগেই মতোই নিষেধাজ্ঞা জারি থাকছে ফ্লোরিডায়।

উল্লেখ্য, গত কয়েক সপ্তাহে WWE-র আগের রেকর্ড করা শো টেলিভিশনে সম্প্রচারিত হচ্ছিল। নতুুন শো রেকর্ড করার অনুমতি মেলার পর ওয়ার্ল্ড রেসলিং এন্টারটেনমেন্টের তরফে জানানো হয়ে, 'আমাদের মনে হয়েছে যে, এমন কঠিন সময়ে মানুষের বিনোদন আরও বেশি করে প্রয়োজন। আমরা খুব সতর্কতার সঙ্গে নতুন শো রেকর্ড করছি। সরকারি নিয়ম মেনে পারফর্মারদের স্বাস্থ্য ও সুরক্ষার দিকে নজর রাখা হচ্ছে। নির্দিষ্ট কিছু মানুষ ছাড়া রিংয়ের আশেপাশে যাওয়ার অনুমতি নেই কারও।'

বন্ধ করুন