বাংলা নিউজ > ময়দান > CPL 2021: ১১ ছক্কায় লুইসের বিধ্বংসী শতরানে উড়ে গেল শাহরুখের ক্যারেবিয়ান নাইট
এভিন লুইস (ছবি:গেটি ইমেজ)
এভিন লুইস (ছবি:গেটি ইমেজ)

CPL 2021: ১১ ছক্কায় লুইসের বিধ্বংসী শতরানে উড়ে গেল শাহরুখের ক্যারেবিয়ান নাইট

  • দুরন্ত ব্যাটিং করেন গুয়ানার নিকোলাস পুরান।  মাত্র ৩৯ বলে ৭৫ রান করেন পুরান। ১১ টি ছক্কা হাঁকিয়ে নিজের শতরান নিশ্চিত করার পাশাপাশি দলের জয়ও সুনিশ্চিত করলেন এভিন লুইস।

শুভব্রত মুখার্জি: টি-২০ ক্রিকেটে ক্যারিবায়ানদের বরাবর আধিপত্য রয়েছে। দুবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন তারা। সামনেই আমিরশাহিতে বসতে চলেছে টি-২০ বিশ্বকাপের আসর। তার আগে দেশের ঘরোয়া ফ্রাঞ্চাইজি ভিত্তিক টি-২০ টুর্নামেন্ট ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) নিজেদের ঝালিয়ে নিচ্ছেন ক্যারিবিয়ান তারকারা। শনিবার সিপিএল সাক্ষী থাকল বাঁ-হাতি ওপেনিং ব্যাটসম্যান এভিন লুইসের ব্যাট হাতে ঝড়ের। বিপক্ষ বোলারদের বিরুদ্ধে কার্যত মারকুটে 'খুনে' মেজাজের ব্যাটিং করেন। ১১ টি ছক্কা হাঁকিয়ে নিজের শতরান নিশ্চিত করার পাশাপাশি দলের জয়ও সুনিশ্চিত করলেন এভিন লুইস।

তবে এ দিন কিন্তু আগেই প্যাভিলিয়নে ফিরে যেতে পারতেন এভিন লুইস। ম্যাচে তার ইনিংস চলাকালীন ২৯ রানে 'জীবন’দান পান তিনি। সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে ভুল করেননি ক্যারিবিয়ান তারকা। ব্যাট হাতে ২২ গজে কার্যত রানের 'সুনামি' তুলে দিয়ে তিনি তার শতরান পূর্ণ করেন। আর তার এই ঝোড়ো শতরানে ভর করেই ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) সেমিফাইনালে উঠল সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস।

তারা ৮ উইকেটে হারিয়ে দিল শাহরুখ খানের দল ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সকে। ৫২ বলে ১০২ রান করে অপরাজিত থাকেন লুইস। তার ইনিংস সাজানো ছিল ৫টি বাউন্ডারি ও ১১টি ছয়ে। উল্লেখ্য আসন্ন টি-২০ বিশ্বকাপে ক্যারিবিয়ান দলে রয়েছেন লুইস। তার এই দুর্দান্ত ইনিংস যে উইন্ডিজের বাকি প্রতিপক্ষের জন্য সতর্কবার্তা তা বলাই বাহুল্য। ম্যাচে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে কলিন মুনরোর ৪৭ এবং সুনীল নারিনের ১৮ বলে ৩৩ রানে বিপক্ষকে ১৬০ রান লক্ষ্যমাত্রা দিয়েছিল নাইটরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে দুই উইকেট হারিয়ে ১৪.৪ ওভারেই লক্ষ্যে পৌঁছায় সেন্ট কিটস। সৌজন্যে অবশ্যেই এভিন লুইসের মারকুটে ইনিংস।

এ দিনের অন্য ম্যাচে গুয়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্স ৪৬ রানে হারিয়ে দিল জ্যামাইকা  তাল্লাওয়াহসকে।  দুরন্ত ব্যাটিং করেন গুয়ানার নিকোলাস পুরান।  মাত্র  ৩৯ বলে ৭৫ রান করেন পুরান। চারটি বাউন্ডারি ও সাতটি ওভার বাউন্ডারি দিয়ে সাজানো ছিল পুরানের এ দিনের ইনিংস। প্রথম ইনিংসে ব্যাট করে ৬ উইকেটে ১৬৯ রান তোলে  গুয়ানা। জবাবে ১২৩ রানেই শেষ হয়ে যায় জামাইকার ইনিংস।  ম্য়াচের সেরা হন নিকোলাস পুরান।

বন্ধ করুন