বাংলা নিউজ > ময়দান > জাতীয় দল ছেড়ে T20 লিগ খেলতে ছুটতে পারেন ওয়ার্নার, ভয়ে অধিনায়কত্ব ব্যান তোলার ভাবনা অস্ট্রেলিয়ার

জাতীয় দল ছেড়ে T20 লিগ খেলতে ছুটতে পারেন ওয়ার্নার, ভয়ে অধিনায়কত্ব ব্যান তোলার ভাবনা অস্ট্রেলিয়ার

অস্ট্রেলিয়ার জার্সিতে ডেভিড ওয়ার্নার। ছবি- এএফপি। (AFP)

দক্ষিণ আফ্রিকায় ঘটা ‘স্যান্ডপেপার গেট’র পরেই অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়কত্ব করা থেকে চিরতরে ওয়ার্নারকে ব্যান করা হয়েছিল।

২০১৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় ‘স্যান্ডপেপার গেট’র কথা এখনও কেউ ভোলেননি। বল বিকৃত করার চেষ্টায় হাতেনাতে ধরা পড়েছিল অস্ট্রেলিয়া। ঘটনায় মূল অভিযুক্ত ক্যামেরন ব্যানক্রফ্ট, স্টিভ স্মিথ এবং ডেভিড ওয়ার্নারকে কড়া শাস্তি দিয়েছিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। ব্যানক্রফ্ট নয় ও স্মিথ এবং ওয়ার্নারকে এক বছরের জন্য নির্বাসিত করা হয়।

এখানেই শেষ নয়। এছাড়া তৎকালীন অধিনায়ক স্মিথ এবং সহ-অধিনায়ক ওয়ার্নারের ওপর অস্ট্রেলিয়াকে দলকে নেতৃত্ব ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল। স্মিথ নিজের সেই ব্যানের সময়সীমা পার করে ইতিমধ্যেই অস্ট্রেলিয়া দলকে এক অ্যাসেজ টেস্টে নেতৃত্ব দিয়েছেন। তিনি টেস্ট দলের সহ-অধিনায়কও বটে। তবে ওয়ার্নারের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় দল তথা ঘরোয়া দল সব ক্ষেত্রেই তিনি যাতে আর অধিনায়কত্ব না করতে পারেন, তার জন্য আজীবন ব্যান করা হয়েছিল। তবে এই সিদ্ধান্ত বদলাতে পারে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

News Corp Australia-র রিপোর্ট অনুযায়ী ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া নিজেদের এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করে আলোচনায় বসতে পারে এবং ওয়ার্নারেরে ওপর থেকে ব্যানও উঠতে পারে। এর পিছনে মূল কারণ হল ভয়। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার অন্দরমহলে অনেকেই আশঙ্কা করছেন ৩৫-র ওয়ার্নার হয়তো সম্প্রতি ভবিষ্যতে জাতীয় দলের বদলে কোনও টি-২০ লিগে খেলতে ছুটতে পারেন। এমনিই অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশে ২০১৩ সালের পর থেকে পর থেকে খেলেননা ওয়ার্নার। তাঁর স্ত্রীও ইঙ্গিত দিয়েই রেখেছেন যে ওয়ার্নার ভবিষ্যতে বিদেশি টি-২০ লিগেই খেলতে পারেন।

ওয়ার্নারের স্ত্রী ক্যান্ডিস জানান, ‘পৃথিবীতে বহু লিগ আছে যার সময়সীমা বিগ ব্যাশের থেকে কম। বিগ ব্যাশ বিশাল লম্বা টুর্নামেন্ট। পরিবারের দিক থেকে দেখতে গেলে জানুয়ারিতে তো দুবাইয়ে একটা টুর্নামেন্ট হবে, ওটা বেশি আকর্ষক। ওটায় খেললে ডেভিড আমাদের সঙ্গে ক্রিসমাস পালন করে তারপর দুবাইয়ে খেলতে যেতে পারবে, তাও কম সময়ের জন্য। আর ভবিষ্যতে কত যে নতুন নতুন টুর্নামেন্ট চালু হবে,তার ধারণা কারুর নেই।’ এই টুর্নামেন্টের টান থেকে ওয়ার্নারকে বিরত রাখতে মন বদলাতে চলেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

বন্ধ করুন