বাংলা নিউজ > ময়দান > ব্রডকাস্টারদের সঙ্গে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার নয়া চুক্তি, কমে গেল বিগ ব্যাশের ম্যাচ

ব্রডকাস্টারদের সঙ্গে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার নয়া চুক্তি, কমে গেল বিগ ব্যাশের ম্যাচ

কমে গেল বিগ ব্যাশ লিগের ম্যাচ সংখ্যা

আসন্ন মরশুমের বিগ ব্যাশের ম্যাচ সংখ্যা এবার কমতে চলেছে। ২০২৪-২৫ মরশুমে বিগ ব্যাশ লিগে খেলা হবে মাত্র ৪৩টি ম্যাচ। যা অন্যান্য মরশুমের তুলনায় অনেকটাই কম। আগের মরশুমগুলোর তুলনায় আসন্ন মরশুমে ১৮টি ম্যাচ কম খেলা হবে!

শুভব্রত মুখার্জি: ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার জনপ্রিয় ঘরোয়া ফ্রাঞ্চাইজি টি-২০ লিগ বিগ ব্যাশ। আর সেখানেই কিনা কমতে চলেছে ম্যাচ সংখ্যা। অবিশ্বাস্য শোনালেও ঘটনাটি সত্যি। সম্প্রতি ব্রডকাস্টারদের সঙ্গে এক নয়া চুক্তি হয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার। আর সেই চুক্তির শর্ত অনুযায়ী নাকি আসন্ন মরশুমের বিগ ব্যাশের ম্যাচ সংখ্যা এবার কমতে চলেছে। ২০২৪-২৫ মরশুমে বিগ ব্যাশ লিগে খেলা হবে মাত্র ৪৩টি ম্যাচ। যা অন্যান্য মরশুমের তুলনায় অনেকটাই কম। আগের মরশুমগুলোর তুলনায় আসন্ন মরশুমে ১৮টি ম্যাচ কম খেলা হবে!

আরও পড়ুন… আল নাসেরে থেকেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলতে পারেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো!

প্রসঙ্গত সম্প্রতি ফক্সটেল মিডিয়া এবং সেভেন ওয়েস্ট মিডিয়ার সঙ্গে ব্রডকাস্টিংয়ের বিষয়ে নয়া চুক্তি হয়েছে। সেই চুক্তির শর্ত অনুযায়ী কমছে বিগ ব্যাশের ম্যাচ সংখ্যা। তবে আসন্ন মরশুমে প্রথমবার নয় এর আগেও বিগ ব্যাশে খেলা হয়েছে ৪৩টি ম্যাচ। ২০১৭-১৮ মরশুমেও বিগ ব্যাশে খেলা হয়েছিল ৪৩টি ম্যাচ। তবে ম্যাচ কমানোর পিছনে দুটি যুক্তিও খাড়া করা হয়েছে। বলা হয়েছে স্কুলের যে সময়টায় ছুটি থাকবে সেই সময়তে ম্যাচ শেষ করা হচ্ছে প্রাথমিক লক্ষ্য। আর দ্বিতীয় লক্ষ্য হল অস্ট্রেলিয়া এবং বিদেশের সমস্ত নামি দামি ক্রিকেটারদেরকে যাতে করে বিগ ব্যাশে খেলানো যায়।

আরও পড়ুন… দোষটা কার? বাবর আজমকে কি রান আউট করালেন ইমাম-উল-হক? দেখুন ভিডিয়ো

বিষয়টি নিয়ে বলতে গিয়ে ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নিক হকলি জানিয়েছেন, ‘আমরা সমর্থকদের কথা শুনছিলাম। তাদের তরফ থেকে অনেক আগে থেকেই এই দাবি করা হচ্ছিল। ক্রিকেটারদের তরফেও এই দাবি ছিল। এই বছরের বিগ ব্যাশেও আমরা সেটা দেখেছি। গ্রীষ্মকালীন ছুটিতে প্রাইম টাইমে আমরা সব খেলাগুলো রাখতে চাইছি। যাতে করে সমর্থকরা ম্যাচগুলো উপভোগ করতে পারে। আর সেই কারণেই সূচিতে রদবদলের ভাবনা। পাশাপাশি সূচিতে রদবদল আসলে আমরা বিদেশের এবং অস্ট্রেলিয়ার সেরা ক্রিকেটারদেরও খেলাতে সক্ষম হব। আমাদের ভবিষ্যৎ ট্যুর প্রোগ্রামের জন্যও বিষয়টা খুব ভালো।’

বন্ধ করুন