বাড়ি > ময়দান > সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং উপেক্ষা করে বিতর্কে জড়িয়ে পড়লেন রোনাল্ডো
নিজের পছন্দের রেস্টুরেন্টের মালকিনের সঙ্গে রোনাল্ডো। ছবি- ইনস্টাগ্রাম।
নিজের পছন্দের রেস্টুরেন্টের মালকিনের সঙ্গে রোনাল্ডো। ছবি- ইনস্টাগ্রাম।

সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং উপেক্ষা করে বিতর্কে জড়িয়ে পড়লেন রোনাল্ডো

  • ঝটিতি সফরে ইতালি থেকে দেশে ফেরেন সিআর সেভেন।

লকডাউনের পর যখন পুনরায় শুরুর অপেক্ষায় প্রহর গুনছে সিরি-এ, ঠিক তখনই ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন জুভেন্তাসের পর্তুগীজ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো জড়িয়ে পড়লেন বিতর্কে। ইতালি ছেড়ে ঝটিতি সফরে পর্তুগালে উড়ে যান রোনাল্ডো, যেখানে তাঁকে সোশ্যাল ডিসট্যান্সিংয়ের নিয়ম অমান্য করতে দেখা যায়।

রোনাল্ডো তাঁর বান্ধবী জর্জিনা রডরিগেজকে সঙ্গে নিয়ে লিসবনে তাঁর প্রিয় রেস্টুরেন্টে উপস্থিত হন। রেস্টুরেন্টের মালকিনের সঙ্গে তাঁকে ছবি তুলতে দেখা যায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ছবি ছড়িয়ে পড়া মাত্রই প্রশ্ন উঠতে শুরু করে করোনা ভাইরাস নিয়ে রোনাল্ডোর অসচেতনতার বার্তা দেওয়া প্রসঙ্গে।

রোনাল্ডো লিসবনে মার দো ইনফারনো কাসকাইস রেস্টুরেন্টে উপস্থিত হন, যেখানে এর আগেও তাঁকে ছেলের সঙ্গে দেখা গিয়েছে। রেস্টুরেন্টের মালকিন মারিয়ার সঙ্গে ছবিও তোলেন সিআর সেভেন। ছবিতে দু'জনকে এতটাই কাছাকাছি দেখা গিয়েছে যে, প্রশ্ন ওঠা স্বাভাবিক পারস্পরিক ২ মিটার দূরত্ববিধি নিয়ে। টেবিলে বসা ছাড়া বাকি সময়ে পর্তুগালের বার ও রেস্টুরেন্টেও মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। মারিয়া মাস্ক পরে থাকলেও রোনাল্ডোর মাস্ক ছিল হাতে।

তুরিনে কোয়ারান্টাই পর্ব সেরে অনুশীলনে ফিরেছিলেন রোনাল্ডো। ইতালি ও পর্তুগাল দু'দেশেই আন্তর্জাতিক উড়ানের পর কোয়ারান্টাইনে থাকার নিয়ম লাগু রয়েছে। রোনাল্ডো সেই নিয়মও উপেক্ষা করেছেন বলে অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে।

বন্ধ করুন