বাংলা নিউজ > ময়দান > অবসর জল্পনা উড়িয়ে ধোনিকে ৩ বছরের জন্য রাখছে CSK, লখনউ-এর নেতৃত্বে কেএল: রিপোর্ট
মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং কেএল রাহুল।
মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং কেএল রাহুল।

অবসর জল্পনা উড়িয়ে ধোনিকে ৩ বছরের জন্য রাখছে CSK, লখনউ-এর নেতৃত্বে কেএল: রিপোর্ট

  • বিসিসিআই-এর নিয়মানুযায়ী, ২০২২ আইপিএলের জন্য ফ্র্যাঞ্চাইজি দলগুলো সর্বোচ্চ চার জন খেলোয়াড়কে ধরে রাখতে পারবে। আর এই তালিকাটি ডিসেম্বরে নির্ধারিত মেগা নিলামের আগেই অর্থাৎ ৩০ নভেম্বরের মধ্যে জমা দিতে হবে।

চেন্নাই সুপার কিংসকে চার বার আইপিএল চ্যাম্পিয়ন করা অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে আরও তিন বছরের জন্য ধরে রাখতে চলেছে এই ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের কর্তৃপক্ষ। স্বভাবতই ধোনির অবসর নিয়ে জল্পনায় অপাতত ইতি টানতে চলেছে ক্রিকেট বিশ্ব। আগামী তিন বছর ধোনি সিএসকে-এর জার্সিতেই আইপিএল খেলবেন।

ধোনি যে পরের মরশুমেও চেন্নাই চুপার কিংসের হয়ে আইপিএল খেলবেন, তার ইঙ্গিত আগেই দিয়েছিলেন চ্য়াম্পিয়ন দলের অধিনায়ক। আর তাতেই এ বার শিলমোহর পড়ল। তবে আর এক বচর নয়, তিন বছরের জন্য তিনি আইপিএল খেলবেন। যদি না বড় কোনও অঘটন ঘটে। বুধবার ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস এই খবরটি প্রকাশ্যে এনেছে। ধোনি ছাড়াও ২০২১ আইপিএলে কমলা ক্যাপজয়ী রুতুরাজ গায়কোয়াড় এবং তারকা অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজাকেও ধরে রাখছে এই ফ্র্যাঞ্চাইজি।

বিসিসিআই-এর নিয়মানুযায়ী, ২০২২ আইপিএলের জন্য ফ্র্যাঞ্চাইজি দলগুলো সর্বোচ্চ চার জন খেলোয়াড়কে ধরে রাখতে পারবে। আর এই তালিকাটি ডিসেম্বরে নির্ধারিত মেগা নিলামের আগেই অর্থাৎ ৩০ নভেম্বরের মধ্যে জমা দিতে হবে। 

জানা গিয়েছে, ইংল্যান্ডের অলরাউন্ডার মইন আলিকে ধরে রাখার জন্য তাঁর সঙ্গে চূড়ান্ত পর্বের কথা চালাচ্ছে সিএসকে। মইন রাজি না হলে, সেক্ষেত্রে তাঁর জাতীয় দলের সতীর্থ স্যাম কারানকে ধরে রাখা হবে।

এদিকে, এমএস ধোনির দুবাইয়ে ফাইনালের পর তার "আমি পিছিয়ে নেই" বিবৃতির পর থেকে কয়েক মাসের জল্পনার অবসান ঘটিয়েছে।

এ দিকে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স আবার রোহিত শর্মা এবং জসপ্রীত বুমরাহকে ধরে রাখতে চলেছে বলে খবর। কায়রন পোলার্ডকে নিয়ে আলোচনা চলছে। তবে চূড়ান্ত কোনও সিদ্ধান্ত তারা নেয়নি। ইশান কিষাণকেও ধরে রাখা হতে পারে। মেগা নিলাম থেকে সূর্যকুমার যাদবকে দলে নিতে মুখিয়ে রয়েছে মুম্বই।

এ দিকে আইপিএলের দুই নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি সঞ্জীব গোয়েঙ্কা গ্রুপ (লখনউ) এবং সিভিসি ক্যাপিটালস (আমেদাবাদ)-ও দল গোছানোর আসরে নেমে পড়েছে। মেগা নিলামের বাইরে থেকে তারা দু'জন করে খেলোয়াড় আগে থেকে সই করাতে পারবে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের তরফে জানা গিয়েছে, কেএল রাহুল নাকি পাঞ্জাব কিংসের সঙ্গে বিচ্ছেদের পরে লখনউ ফ্র্যাঞ্চাইজি টিমকে নেতৃত্ব দিতে সম্মত হয়েছেন। এবং এই বিষয়টি চূড়ান্তও হয়ে গিয়েছে।

এদিকে, আইপিএল ২০২১ সালের রানার্স আপ টিম কলকাতা নাইট রাইডার্স ওয়েস্ট ইন্ডিজের জুটি আন্দ্রে রাসেল এবং সুনীল নারিনকে ধরে রাখতে চলেছে। এ ছাড়াও বরুণ চক্রবর্তী, শুভমান গিল এবং ভেঙ্কটেশ আইয়ারের মতো তরুণদের সঙ্গে আলোচনা চলছে।

বন্ধ করুন