বাংলা নিউজ > ময়দান > শেষ তিনটি অ্যাসেজে সর্বাধিক উইকেট শিকার করে কামিন্সের অনন্য কীর্তি
কামিন্সের অনন্য কীর্তি (ছবি:রয়টার্স) (via REUTERS)
কামিন্সের অনন্য কীর্তি (ছবি:রয়টার্স) (via REUTERS)

শেষ তিনটি অ্যাসেজে সর্বাধিক উইকেট শিকার করে কামিন্সের অনন্য কীর্তি

  • অধিনায়ক হিসেবে প্যাট কামিন্সের এটিই প্রথম সিরিজ ছিল এবং প্রথম সিরিজেই জয়, ফলে খুশি কামিন্স। সিরিজ জেতার পাশাপাশি এক অনন্য কীর্তি করলেন কামিন্স। তিনটি অ্যাসেজেই সর্বাধিক উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করেন তিনি।

ইংল্যান্ডকে ৪-০ ব্যবধানে হারিয়ে অস্ট্রেলিয়া জিতেছে অ্যাসেজ। ফাইনাল ম্যাচের তৃতীয় দিনে ইংল্যান্ডকে পরাজিত করে সিরিজ জিতেছে অস্ট্রেলিয়া। অধিনায়ক হিসেবে প্যাট কামিন্সের এটিই প্রথম সিরিজ ছিল এবং প্রথম সিরিজেই জয়, ফলে খুশি কামিন্স। সিরিজ জেতার পাশাপাশি এক অনন্য কীর্তি করলেন কামিন্স। তিনটি অ্যাসেজেই সর্বাধিক উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করেন তিনি। ২০১৭-১৮ সালের অ্যাসেজে ২৩ টি উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। ২০১৯ সালের অ্যাসেজে কামিন্সের শিকার ছিল ২৯টি উইকেট। ২০২১-২২ অ্যাসেজে তাঁর শিকার ২১টি উইকেট।

সিরিজ জয়ের পর কামিন্স অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় উল্লেখ করেছেন। ম্যাচের পর অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক প্যাট কামিন্স বলেন, ‘অনেক পজিটিভ দিক নিয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ৪-০ ব্যবধানে জয় পাওয়া একজন অধিনায়ক হিসেবে খুবই আনন্দের। আমরা সিরিজে ১৫ জন খেলোয়াড় কিছু কঠিন কাজ সম্পন্ন করেছি। মনে হচ্ছে আমরা বড় কিছু করে ফেলেছি। ক্যামেরন গ্রিন, ব্যাট ও বল হাতে দুর্দান্ত। স্কট বোল্যান্ডও দুর্দান্ত। বিদেশের মাটিতে টেস্ট ক্রিকেটের জন্য আমি মুখিয়ে আছি।’

কামিন্স আরও বলেছেন যে অতিমারীতে আমরা একটি কাজ করিনি তা হল বেশি টেস্ট ক্রিকেট না খেলা। তাই মানিয়ে নিতে প্রস্তুত। এই সময়ে একসঙ্গে থাকার জন্য ইসিবি এবং ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে বিশেষ ধন্যবাদ। এই কঠিন সময় সত্ত্বেও আপনাদের সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ। আজ খেলা শেষ হবে আশা করিনি। এখন এক সপ্তাহ ছুটি। কেউ কেউ বিয়ার উপভোগ করবেন এবং ট্র্যাভিস হেডের সেঞ্চুরি সম্পর্কে কথা শুনতে চান।

উল্লেখযোগ্যভাবে, হোবার্ট টেস্ট ম্যাচের তৃতীয় দিনে, ইংল্যান্ড দল জয়ের জন্য ২৭১ রানের লক্ষ্য পেয়েছিল। মাত্র ১২৪ রান করেই ইংল্যান্ড দল আউট হয়ে যায় এবং অস্ট্রেলিয়া ম্যাচটি বড় জয় পায়। এই সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার পারফরম্যান্স ধারাবাহিক। প্রথম ম্যাচ থেকে পঞ্চম ম্যাচ পর্যন্ত সফরকারী দলের ওপর আধিপত্য বিস্তার করে খেলেছে তারা।

বন্ধ করুন