বাংলা নিউজ > ময়দান > 'আমাকে হেনস্থা করা হচ্ছে', সোশ্যাল মিডিয়ায় কাতর মিনতি অলিম্পিক পদকজয়ী ভারতীয় মহিলা বক্সারের
গুরুতর অভিযোগ আনলেন লভলিনা। ছবি- পিটিআই (PTI)

'আমাকে হেনস্থা করা হচ্ছে', সোশ্যাল মিডিয়ায় কাতর মিনতি অলিম্পিক পদকজয়ী ভারতীয় মহিলা বক্সারের

  • কমনওয়েলথ গেমস ভিলেজে বক্সিং ফেডারেশনের কর্তাদের বিরুদ্ধেই মানসিক নির্যাতনের বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন লভলিনা।

কমনওয়েলথ গেমস শুরুর ঠিক আগে বিস্ফোরণ ঘটালেন লভলিনা বড়গোহাঁই। সোশ্যাল মিডিয়ায় খোলা চিঠিতে অভিযোগ করলেন, গেমস ভিলেজে মানসিকভাবে নির্যাতিত হচ্ছেন তিনি।

এখানেই না থেমে তিনি স্পষ্ট দাবি করেন যে, ঘৃণ্য রাজনীতির শিকার হওয়ায় কমনওয়েলথ গেমসের আগে খেলায় মন দিতে পারছেন না। থমকে গিয়েছে অনুশীলন। ফলে বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপের মতো কমনওয়েলথ গেমসেও তাঁর খারাপ পারফর্ম্যান্সের আশঙ্কা চেপে বসছে।

যদিও কাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তা স্পষ্ট করেননি অলিম্পিক পদকজয়ী বক্সার। তবে অভিযোগের আঙুল যে সর্বভারতীয় বক্সিং ফেডারেশনের কর্তাদের দিকে, তা বুঝে নিতে অসুবিধা হয় না।

আরও পড়ুন:- CWG 2022: শেষ ৫টি কমনওয়েলথ গেমসে ভারত কতগুলি পদক জিতেছে, দেখে নিন সেই তালিকা

লভলিনা লেখেন, ‘আজ আমি খুব দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, আমার উপর নির্যাতন চালানো হচ্ছে। বারবার আমার কোচেদের সরিয়ে আমার ট্রেনিং এবং কম্পিটিশনে বাধা সৃষ্টি করা হয়। অথচ এই কোচেরাই আমাকে অলিম্পিক পদক জিততে সাহায্য করেছেন। এঁদের মধ্যে একজন কোচ সন্ধ্যা গুরুং’জি তো দ্রোণাচার্য পুরস্কারেও সম্মানিত।'

আরও পড়ুন:- CWG 2022: গ্রুপ থেকে ভারতের সূচি, কমনওয়েলথ গেমস ক্রিকেটের ১০টি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জেনে নিন

তারকা বক্সার আরও লেখেন, ‘এই মুহূর্তে আমার কোচ সন্ধ্যা গুরুং’জি কমনওয়েলথ গেমস ভিলেজের বাইরে রয়েছেন। ওনাকে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। টুর্নামেন্ট শুরু হতে মাত্র ৮ দিন বাকি। এখন আমার ট্রেনিং থমকে রয়েছে। আমার অপর কোচকেও ভারতে ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমার অনেক অনুরোধ সত্ত্বেও কোনও কথা শোনা হয়নি। আমি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছি। বুঝতে পারছি না খেলায় মন দেব কীভাবে। এই সব কারণেই আমার শেষ ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপও খারাপ হয়েছে। এই ঘৃণ্য রাজনীতির জন্য আমি আমার কমনওয়েলথ গেমস খারাপ করতে চাই না। আশা করি এই রাজনীতির বাধা ভেঙে আমি দেশের জন্য পদক আনতে পারব।'

বন্ধ করুন