বাংলা নিউজ > ময়দান > CWG 2022: গেমসে যোগ দিতে আদালতে যেতে হয়েছিল, সেই তেজস্বিন পদক জিতে ইতিহাস লিখলেন
তেজস্বিন শঙ্কর।

CWG 2022: গেমসে যোগ দিতে আদালতে যেতে হয়েছিল, সেই তেজস্বিন পদক জিতে ইতিহাস লিখলেন

  • ২.২২ মিটার লাফানোর পর তিনি তৃতীয় স্থানে ছিলেন। এবং তাঁর চেয়ে এগিয়ে ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার ব্র্যান্ডন স্টার্ক এবং নিউজিল্যান্ডের হামিশ কার। দু'জনেই ২.২৫ মিটার উচ্চতা অতিক্রম করেছিলেন, কিন্তু তেজস্বিন সেটা মিস করেন এবং দু'বারের চেষ্টাতেও তা অতিক্রম করতে পারেননি।

ভারোত্তোলন, জুডো, টেবিল টেনিস, লন বল, স্কোয়াশ এবং ব্যাডমিন্টনের পর অ্যাথলেটিক্সেও সাফল্য পেল ভারত। ভারতের তারকা ক্রীড়াবিদ তেজস্বিন শঙ্কর ২০২২ বার্মিংহ্যাম কমনওয়েলথ গেমসে পুরুষদের হাই জাম্পে ব্রোঞ্জ পদক জিতে অ্যাথলেটিক্সে ভারতের খাতা খুলেছেন। তেজস্বিন, হাই জাম্পে যাঁর জাতীয় রেকর্ড রয়েছে, ফাইনালে তিনি সর্বোচ্চ লাফান ২.২২মিটার। সেই সঙ্গে হাই জাম্পে ভারতের প্রথম কমনওয়েলথ গেমস থেকে পদক জিতে ইতিহাস লিখে ফেললেন তেজস্বিন।

তেজস্বিনের সফল প্রচেষ্টা

বুধবার, ৩ আগস্ট কমনওয়েলথ গেমসের মূল ভেন্যু আলেকজান্ডার স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হাই জাম্প ফাইনালে তেজস্বিন ২.১০ মিটার লাফিয়ে একটি সফল সূচনা করেছিলেন। প্রথম প্রচেষ্টায় তিনি তা অতিক্রম করেন। এর পরে, তেজস্বিন প্রথম প্রচেষ্টাতেই ২.১৫, ২.১৯. ২.২২ মিটারের বার অতিক্রম করেন।

আরও পড়ুন: রুপো জিতলেন তুলিকা, ব্রোঞ্জ সৌরভের, পদক নিশ্চিত জারিনের

কোন পথে ব্রোঞ্জ

২.২২ মিটার লাফানোর পর তিনি তৃতীয় স্থানে ছিলেন। এবং তাঁর চেয়ে এগিয়ে ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার ব্র্যান্ডন স্টার্ক এবং নিউজিল্যান্ডের হামিশ কার। দু'জনেই ২.২৫ মিটার উচ্চতা অতিক্রম করেছিলেন, কিন্তু তেজস্বিন সেটা মিস করেন এবং দু'বারের চেষ্টাতেও তা অতিক্রম করতে পারেননি।

এ দিকে তাঁর শেষ প্রতিদ্বন্দ্বী বাহামার ডোনাল্ড থমাসও এই উচ্চতায় আটকে যান এবং তিনটি প্রচেষ্টাতেই ব্যর্থ হন। এমন পরিস্থিতিতে, তেজস্বিনের তৃতীয় অবস্থান নিশ্চিত হয়ে যায়। কারণ তিনি আগে কোনও প্রচেষ্টায় ব্যর্থ হননি। যখন থমাস ২.১৫ মিটার এবং ২.২২ মিটার প্রতিটিতে একবার করে ব্যর্থ হয়েছিলেন।

আরও পড়ুন: সহজে ছেলেরা, কষ্ট করে মেয়েরা, কানাডাকে হারিয়ে ভারত গেল সেমিতে

এ ভাবে টাই হয়ে গেলে, সবচেয়ে কম প্রচেষ্টায় যে ক্রীড়াবিদ হার্ডেল টপকাতে পারেন, তাঁকেই বিজয়ী হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তাই তেজস্বিন তৃতীয় হয়ে ব্রোঞ্জ জিতে নেন। পদক নিশ্চিত হওয়ার পরে, তেজস্বিন বারের উচ্চতা ২.২৫ থেকে ২.২৮ বৃদ্ধি করেছিলেন, কিন্তু তিনি এতেও ব্যর্থ হন। তা সত্ত্বেও, তাঁর পদক নিশ্চিত হয়েছিল এবং তিনি ঐতিহাসিক ব্রোঞ্জ জেতেন।

আদালতের সহায়তায় পদকের যাত্রা

তেজস্বিনের এই পদকটি শুধু ঐতিহাসিকই নয়, খুব বিশেষও বটে। কারণ তিনি আগে বার্মিংহ্যাম গেমসের জন্য নির্বাচিত হননি। ভারতের অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন তেজস্বিনকে কমনওয়েলথের ৩৬-সদস্যের দলে সুযোগ দেয়নি। কারণ তিনি অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ার (AFI) কোয়ালিফাইং ইভেন্টে অংশগ্রহণ করেননি। কিন্তু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কানসাস বিশ্ববিদ্যালয়ের ইভেন্টে ভারতের অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন বেধে দেওয়া যোগ্যতা মান অর্জন করেছিলেন। যে কারণে তাঁকে আদালতের দ্বারস্থ হতে হয়। দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর আদালতের রায়ের পরেও কাঠখড় পুড়িয়ে তিনি শেষ পর্যন্ত বার্মিংহ্যামে আসেন। এবং ইতিহাস রচনা করেন।

বন্ধ করুন