বাংলা নিউজ > ময়দান > দুই দশকে এমন দেখিনি-অশ্বিনের সঙ্গে পেইনের আচরণে হতবাক কিংবদন্তী ক্রিকেটার
পেইন ও অশ্বিন (AP)
পেইন ও অশ্বিন (AP)

দুই দশকে এমন দেখিনি-অশ্বিনের সঙ্গে পেইনের আচরণে হতবাক কিংবদন্তী ক্রিকেটার

  • অজি অধিনায়ককে তীব্র ভর্ৎসনা করলেন তিনি। 

ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়ার খেলা হবে আর ২২ গজ স্লেজিং মুক্ত থাকবে এটা হওয়া কোনভাবেই সম্ভব নয়। সেই ৯০'র দশক থেকে স্লেজিং রোগাক্রান্ত অজিরা। তাঁদের দেশে সফররত দলের মূল ক্রিকেটারদের মানসিক চাপে ফেলে তাদের পারফরম্যান্স খারাপ করানোর এই কৌশলটা স্টিভ ওয়া,রিকি পন্টিং,মাইকেল ক্লার্ক,স্টিভ স্মিথরা বরাবর ব্যবহার করে এসেছেন। তবে সৌরভের নেতৃত্বাধীন ভারত এই জবাবটা তাদের মাটিতে ফিরিয়ে দিয়েছিল প্রথমবার। তারপর থেকে বিরাটদের বিরুদ্ধে এই পরিকল্পনা ব্যবহার করার আগে একটু ভেবে চিন্তে কথা বলতেন তারা। কিন্তু সিডনি টেস্টের একেবারে শেষ দিনে এসে হনুমা এবং অশ্বিনের হার না মানা লড়াইয়ের সামনে খেই হারিয়ে আর নিজের হতাশা চাপতে পারেননি অজি অধিনায়ক টিম পেইন।

সেদিন স্ট্যাম্পের পিছনে থেকে অনবরত অশ্বিনের মনঃসংযোগকে ভাঙার মরিয়া প্রচেষ্টা করে যান অজি অধিনায়ক টিম পেইন। কথা বলতে বলতে শালীনতার মাত্রা পার করে যান তিনি। তার প্রত্যুত্তর ও দেন অশ্বিন। তবে শালীনতার মাত্রা বজায় রেখেই করেন তা।

এবার এই বিষয়ে মুখ খুললেন প্রাক্তন ইংরেজ ক্রিকেটার ডেভিড লয়েড। 'বাম্বেল' নামে খ্যাত লয়েড জানালেন তার সাথে কেউ এই ভাষায় কথা বললে তিনি তাকে কোনভাবেই আর সম্মান করতে পারতেন না। তিনি ইংরেজ সংবাদমাধ্যমে হয়ে লেখা তার কলামে লিখলেন 'সময় এবার এসেছে পেইনকে তার ক্রিকেটারদেরকে নিয়ন্ত্রন করতে হবে। তার আগে তাঁকে ভালো পারফরমেন্স করতে হবে মাঠে যার মাধ্যমে সে নিদর্শন তৈরী করতে পারবে। অশ্বিনের সাথে যেভাবে ও কথা বলেছে, আমার সাথে কেউ এইভাবে কথা বললে তার জন্য আমার কাছে আর কোন সম্মান অবশিষ্ট থাকত না। আমি প্রায় দু দশক ক্রিকেটটা খেলেছি। আমাদের সময় থমসন,ডেনিস লিলিরা যে স্লেজিংটা করত তা হল হাল্কা চালে মজার মতন।আমি জানিনা এই ঘটনার পরেই অশ্বিন কিভাবে পেইন বা অজিদের সাথে ড্রিঙ্কস শেয়ার করবে।'

 

বন্ধ করুন