বাংলা নিউজ > ময়দান > বলের আঘাতে মাঠে লুটিয়ে পড়লেন ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার, ফিরল ফিল হিউজের স্মৃতির ঝলক
চোট পেয়ে স্ট্রেচারে করে মাঠ ছাড়ছেন জেরেমি সোলোজানো।
চোট পেয়ে স্ট্রেচারে করে মাঠ ছাড়ছেন জেরেমি সোলোজানো।

বলের আঘাতে মাঠে লুটিয়ে পড়লেন ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার, ফিরল ফিল হিউজের স্মৃতির ঝলক

  • টসে জিতে শ্রীলঙ্কা ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়। তাদের প্রথম ইনিংসের ২৪ তম ওভারে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। রোস্টন চেজের একটি শর্ট ডেলিভারিতে, বলটি সজোরে মারতে চেয়েছিলেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে। তখন শর্ট লেগে ফিল্ডিং করছিলেন সোলোজানো। করুণারত্নের সেই জোরালো পুল শট এসে সোলোজানোর মাথায় আঘাত লাগে।

২২ গজে আবারও ফিল হিউজের সেই ভয়ঙ্কর ঘটনাক ঝলক ফিরে এল। এ বার সেই স্মৃতি ফিরল শ্রীলঙ্কার গলে। শ্রীলঙ্কা-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে। ফিল্ডিংয়ের সময়ে বলের আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের জেরেমি সোলোজানো। তবে মৃত্যুর মতো কোনও দুর্ভাগ্যজনক ঘটনার হাত থেকে এ যাত্রায় রেহাই পাওয়া গিয়েছে।

অভিষেক ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন সোলোজানো। সেই ম্যাচেই তিনি বড় দুর্ঘটনার মুখে পড়েন। রবিবার শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে গল টেস্টে ফিল্ডিংয়ের সময়ে মাথায় বলের আঘাত পান ২৬ বছরের এই তরুণ ক্রিকেটার। মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। তাঁকে স্ট্রেচারে করে মাঠের বাইরে নিয়ে আসতে হয়। অবস্থা বেগতিক থাকায় তাঁকে সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

টসে জিতে শ্রীলঙ্কা ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়। তাদের প্রথম ইনিংসের ২৪ তম ওভারে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। রোস্টন চেজের একটি শর্ট ডেলিভারিতে, বলটি সজোরে মারতে চেয়েছিলেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে। তখন শর্ট লেগে ফিল্ডিং করছিলেন সোলোজানো। করুণারত্নের সেই জোরালো পুল শট সরাসরি এসে সোলোজানোর মাথায় সজোরে আঘাত লাগে। হেলমেট পরে ছিলেন তিনি। তবু মাথায় এতটাই জোরে আঘাত লাগে যে সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন সোলোজানো। 

দলের ফিজিও এসে প্রাথমিক চিকিৎসা করেন তাঁর। তবে চোট খুবই গুরুতর হওয়ায় স্ট্রেচারে করে মাঠ ছাড়তে হয় সোলোজানোকে। এর পর এক মুহূর্ত দেরী না করে অ্যাম্বুলেন্সে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে, হাসপাতালে মাথার স্ক্যান করার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সোলোজানোর জ্ঞান রয়েছে।

এর আগে শনিবার বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তান দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচেও এমনই এক ভয়াবহ ঘটনা ঘটেছিল। খেলার মাঝেই বল ছুঁড়ে মেরে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানকে আহত করেছিলেন পাকিস্তানের শাহিন আফ্রিদি।  ইনিংসের তৃতীয় ওভারে বল করতে আসা শাহিনের দ্বিতীয় বলে দুর্দান্ত ছক্কা হাঁকান আফিফ হোসেন। পরের বলটি আফিফ ডিফেন্স করেন। ফলে সেটি শাহিনের হাতে চলে যায়। শাহিন বল নিয়ে সোজা অফিফের দিকে ছুঁড়ে মারেন। সেই বল মাথায় লাগার পর ক্রিজেই বেশ কিছুক্ষণ শুয়ে কাতরাতে দেখা গিয়েছিল আফিফকে। এই ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই শাহিন আফ্রিদিকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় বয়ে চলেছে।

এ বার শ্রীলঙ্কা অধিনায়কের ঘটনাটি যদিও ইচ্ছাকৃত নয়। তবু এই ঘটনায় মাঠের ক্রিকেটাররা সকলেই খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন। এখন সকলেই কামনা করছেন, ২৬ বছরের ক্যারিবিয়ান তরুণ যেন একেবারে সুস্থ থাকেন। এই চোটের ফলে তাঁর যেন কোনও ক্ষতি না হয়।

বন্ধ করুন