বাংলা নিউজ > ময়দান > IPL 22: অনন্য উপায়ে কিংবদন্তি শেন ওয়ার্নকে শ্রদ্ধার্ঘ্য রাজস্থান রয়্যালসের

IPL 22: অনন্য উপায়ে কিংবদন্তি শেন ওয়ার্নকে শ্রদ্ধার্ঘ্য রাজস্থান রয়্যালসের

শেন ওয়ার্ন (IPL)

ওয়ার্নকে বলতে শোনা যায় 'প্রথম ম্যাচে আমরা দিল্লির কাছে খুব বাজেভাবে হারি। বীরেন্দ্র সেহওয়াগ সেই ম্যাচে আমাদেরকে খুব মেরেছিল। আমরা হেরে গিয়েছিলাম। আমি যখন সাজঘরে প্রবেশ করি তখন দেখি আমাদের ছেলেরা সবাই কাঁদছে।'

শুভব্রত মুখার্জি: চলতি বছরের মার্চ মাসে হঠাৎ করেই ক্রিকেট বিশ্বের সকলের জন্য এসেছিল অত্যন্ত এক খারাপ খবর। থাইল্যান্ডের কো সামুই দ্বীপে বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে ছুটি কাটানোর সময়তে হঠাৎ করেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে অকাল মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন শেন ওয়ার্ন। উল্লেখ্য ২০০৮ সালে যখন প্রথমবার আইপিএল শুরু হয়েছিল তখন ওয়ার্নের নেতৃত্বেই রাজস্থান রয়্যালস প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। নবীন, আনকোরা একদল ক্রিকেটারকে নিয়ে সেদিন বাজিমাত করেছিলেন ওয়ার্ন। ফ্রাঞ্চাইজির প্রতি ওয়ার্নের সেই অবদানের কথা মাথাতে রেখেই শনিবার আইপিএলের মুম্বই ইন্ডিয়ান্স দলের বিরুদ্ধে ম্যাচে তার প্রতি অনন্য শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করেন তারা।

এদিন ম্যাচ শুরুর আগে রয়্যালস পরিবারের তরফে একটি ৭ মিনিটের ভিডিয়ো প্রস্তুত করা হয়। তাদের প্রথম শিরোপা জয় উদযাপন, ওয়ার্নের অধিনায়কত্বের বিভিন্ন দিক তুলে ধরতেই তৈরি করা হয় এই ভিডিয়োটি। সেই দলের সদস্য মহম্মদ কাইফ, গ্রেম স্মিথ, শেন ওয়াটসনরা তাদের শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। ২০০৮ মরশুমের অভিযান নিয়ে ওয়ার্নের মুখে বিভিন্ন ছোট ছোট গল্পের স্নিপেটস তুলে ধরা হয়। সেই মরশুমে প্রথম ম্যাচে দিল্লির কাছে ৯ উইকেটে হারতে হয়েছিল রাজস্থানকে। সেই ম্যাচেরও এক অজানা কাহিনি তুলে ধরেন স্বয়ং ওয়ার্ন। ওয়ার্নকে বলতে শোনা যায় 'প্রথম ম্যাচে আমরা দিল্লির কাছে খুব বাজেভাবে হারি। বীরেন্দ্র সেহওয়াগ সেই ম্যাচে আমাদেরকে খুব মেরেছিল। আমরা হেরে গিয়েছিলাম। আমি যখন সাজঘরে প্রবেশ করি তখন দেখি আমাদের ছেলেরা সবাই কাঁদছে।'

ওয়ার্নকে আরও বলতে শোনা যায় 'আমি সেখানে দাঁড়িয়ে পরি, ওদেরকে বলি আমি কি কিছু ভুলে যাচ্ছি! প্রত্যেকে এদিক ওদিক দেখতে শুরু করে। আমি বলি 'কেউ কি মারা গিয়েছে?' আমরা একটা ক্রিকেট ম্যাচ হেরেছি। আমাদের কাছে আরও ১৩ টি ম্যাচ আছে। আমাদের সবার ঠিক থাকা উচিত।' পরবর্তী ম্যাচেই পঞ্জাবকে ৬ উইকেটে হারানোর পরেই বদলে গিয়েছিল রাজস্থান ড্রেসিংরুমের মুড।

সেই ম্যাচ নিয়ে ওয়ার্নকে বলতে শোনা যায় 'পরের ম্যাচটা আমাদের ঘরে খেলা ছিল। আমি ৪/১৫ (৩/১৯) বা ওইরকম একটি কিছু করেছিলাম (বল হাতে)। আমরা ম্যাচটা জিতি। আমি ড্রেসিংরুমে ঢুকে দেখি সবাই চেঁচামেচি করছে, আনন্দ করছে, গান গাইছে।'

বন্ধ করুন