বাংলা নিউজ > ময়দান > Dhaka Premier League T20: রান পেলেন, উইকেট পেলেন, তবু জয়ের দেখা পেলেন না শাকিব আল হাসান
ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি২০ তে মহমেডান স্পোর্টিং দল (ছবি: গুগল)
ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি২০ তে মহমেডান স্পোর্টিং দল (ছবি: গুগল)

Dhaka Premier League T20: রান পেলেন, উইকেট পেলেন, তবু জয়ের দেখা পেলেন না শাকিব আল হাসান

  • এদিন ব্যাটে রান পেলেন শাকিব, বল হাতে উইকেটও পেলেন, কিন্তু ম্যাচ জেতাতে পারলেন না তিনি। অন্য ম্যাচে আবহনীর হয়ে জোড়া ফিফটি করলেন মুশফিকুর রহিম ও মসাদ্দেক হোসেন।

বৃষ্টির কারণে ম্যাচের ওভার কমে এসেছিল। ম্যাচ গড়ায় ছয় ওভারে। সেই বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচেও জয় ছিনিয়ে নিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছে প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব। অধিনায়ক ফরহাদ রেজার দল ২২ রানে হারিয়ে দিয়েছে মহমেডান স্পোর্টিং ক্লাবকে। টানা তিন জয়ের পর শাকিব আল হাসানদের এটি টানা দ্বিতীয় হার। অন্যদিকে পাঁচ ম্যাচে শীর্ষে থাকা প্রাইম দোলেশ্বরের এটি চতুর্থ জয়। এদিন ব্যাটে রান পেলেন শাকিব, বল হাতে উইকেটও পেলেন, কিন্তু ম্যাচ জেতাতে পারলেন না তিনি। 

ম্যাচ সেরা ইমরান উজ্জামানের ৪১ রানের দুরন্ত এক ইনিংসের ওপর ভর করে ৪ উইকেট হারিয়ে ৭৮ রান সংগ্রহ করে প্রাইম দোলেশ্বর। জবাবে ৪ উইকেট হারিয়ে ৫৬ রানে গুটিয়ে যায় তার দল মহমেডান। ২২ রানের ইনিংস খেলেও দলকে জেতাতে পারেননি মহমেডানের অধিনায়ক শাকিব আল হাসান।

অন্যদিকে জয়ের খুব কাছাকাছি পৌঁছেও দুই ম্যাচে হারতে হয়েছিল ওল্ড ডিওএইচএস স্পোর্টস ক্লাবকে। তবে এবার তারা জয়ের রাস্তায় ফিরল। তারা ১৭ রানে হারিয়েছে খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতিকে। বৃষ্টির কারণে ১৩ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে ৪ উইকেটে ১২০ রান তোলে ওল্ড ডিওএইচএস। জবাবে ৫ উইকেট হারিয়ে ১০৩ রানেই থেমে যায় খেলাঘরের ইনিংস।

এদিকে প্রথম ম্যাচ ভেসে গিয়েছিল বৃষ্টিতে। পরে টানা তিন ম্যাচে আটকে গিয়েছিল হারের বৃত্তে। অবশেষে পঞ্চম ম্যাচে এসে জয়ের দেখা পেল লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে দলনায়ক নঈম ইসলামের দল ১৪ রানে হারিয়ে দিয়েছে শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবকে। পাঁচ ম্যাচে শাইনপুকুরের এটি চতুর্থ হার। 

অন্য ম্যাচে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সকে ৭ উইকেটে হারিয়ে দিল আবহনী লিমিটেড। আবহনীর হয়ে জোড়া ফিফটি করলেন মুশফিকুর রহিম ও মসাদ্দেক হোসেন। টস জিতে গাজী গ্রুপকে ব্যাট করতে পাঠায় আবহনী। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটের বিনিময়ে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স তোলে ১৫০ রান। জবাবে ১৮ ওভারে তিন উইকেট হারিয়েই জয় পেয়ে যায় আবহনী। 

অন্য সব ব্যাটসম্যান যেখানে দ্রুত রান তুলতে ভুগলেন, সেখানে রনি তালুকদার শট খেললেন অনায়াসে। তার ব্যাটে ভাল শুরু পাওয়া প্রাইম ব্যাঙ্ক অনায়াসে হারিয়ে দিল শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাবকে। প্রথমে ব্যাট করে ১৩৩ রান তোলে শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাব, জবাবে  তিন উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় প্রাইম ব্যাঙ্ক ক্রিকেট ক্লাব।

বন্ধ করুন