বাংলা নিউজ > ময়দান > নিজের বিয়ের পোশাক কিয়ারা আডবানিকে দিয়ে দেন ধোনির স্ত্রী সাক্ষী
নিজের বিয়ের পোশাক কিয়ারাকে দিয়ে দেন সাক্ষী।
নিজের বিয়ের পোশাক কিয়ারাকে দিয়ে দেন সাক্ষী।

নিজের বিয়ের পোশাক কিয়ারা আডবানিকে দিয়ে দেন ধোনির স্ত্রী সাক্ষী

  • ২০১০ সালের ৪ জুলাই ধোনি-সাক্ষী বিয়ে করেছিলেন। তবে সেই বিয়ে হয়েছিল ঘনিষ্ঠ আত্মীয়স্বজন আর বন্ধুবান্ধবের উপস্থিতিতে।

মহেন্দ্র সিং ধোনির বিয়ের ছবিই সে ভাবে কেউ দেখেননি। ভিডিয়ো তো দূরের বিষয়। তবে ‘এম এস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ যাঁরা দেখেছেন, তাঁরা নিঃসন্দেহে ধোনি আর সাক্ষীর বিয়ের মজা নিতে পেরেছেন।

কিন্তু তাঁরা একটা বিষয় জানেন না। রিল আর রিয়েল জীবন এক করে দিতে ছবিতে সাক্ষীর বিয়ের পোশাকই পরেছিলেন কিয়ারা আডবানি। একেবারেই ভুল শোনেনি। মাহির আত্মজীবনী নিয়ে যে ছবি তৈরি হয়েছিল, তার জন্য নিজের বিয়ের পোশাক কিয়ারার হাতে তুলে দিয়েছিলেন সাক্ষী।

রিল আর রিয়েল লাইফের সাক্ষী।
রিল আর রিয়েল লাইফের সাক্ষী।

আসলে সাক্ষী চেয়েছিলেন, বিয়ের সিনটাকে একেবারে বাস্তবের রূপ দিতে। সে কারণেই তিনি নিজের সাধের বিয়ের পোশাক কিয়ারার হাতে তুলে দিতে দ্বিতীয় বার ভাবেননি। এমনই অজানা তথ্য প্রকাশ্যে এসেছে। যা নিয়ে হইচই শুরু হয়ে গিয়েছে।

সাক্ষী এবং কিয়ারার বিয়ের পোশাক ছিল একই রকম।
সাক্ষী এবং কিয়ারার বিয়ের পোশাক ছিল একই রকম।

সাক্ষীর বিয়ের পোশাক পরেই ‘এম এস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি’তে বিয়ের সিনটা করেছিলেন কিয়ারা।

ধোনির রিয়েল আর রিল লাইফের বিয়ে।
ধোনির রিয়েল আর রিল লাইফের বিয়ে।

সেই ছবিতে প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত ধোনির ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। তবে তাঁর বিয়ের পোশাকের সঙ্গে ধোনির পোশাকের মিল থাকলেও, সেটা হুবুহু এক ছিল না। কারণ ধোনি নিজের বিয়ের পোশাক সুশান্তকে দেননি।

২০১০ সালের ৪ জুলাই ধোনি-সাক্ষী বিয়ে করেছিলেন। তবে সেই বিয়ে হয়েছিল ঘনিষ্ঠ আত্মীয়স্বজন আর বন্ধুবান্ধবের উপস্থিতিতে। এগারো বছর হতে চলল তাঁদের বিয়ের। তবে রিয়েল লাইফের চেয়ে রিল লাইফের ধোনির বিয়েই সকলের মনে গেঁথে রয়েছে। কারণ সাধারণ মানুষ ধোনি আর সাক্ষীর রিল লাইফের বিয়েরই সাক্ষী থাকতে পেরেছেন।

বন্ধ করুন