বাংলা নিউজ > ময়দান > Karthik on BCCI sacking selectors: ‘আমরা ভাবতেই পারিনি, নির্বাচকদের ছাঁটাই করবে BCCI’, হতবাক দীনেশ কার্তিক

Karthik on BCCI sacking selectors: ‘আমরা ভাবতেই পারিনি, নির্বাচকদের ছাঁটাই করবে BCCI’, হতবাক দীনেশ কার্তিক

চেতন শর্মা এবং দীনেশ কার্তিক। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে ভিডিয়ো এবং এএফপি)

Karthik on BCCI sacking selectors: দীনেশ কার্তিক হতবাক হলেও নির্বাচক কমিটি যে বেশিদিন টিকবে না, সেই দেওয়াল লিখনটা গত ১০ নভেম্বর স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল। যেদিন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে হেরে গিয়েছিল ভারত।

তাঁদের আমলে কোনও বড় টুর্নামেন্টে সাফল্য পায়নি। তাও চেতন শর্মার নেতৃত্বাধীন পুরুষদের নির্বাচক কমিটিকে বরখাস্ত করা হওয়ায় হতবাক হয়ে গেলেন দীনেশ কার্তিক। তিনি বলেন, ‘আমি জানি যে এই ছেঁটে ফেলা শব্দটা ব্যাপকভাবে ব্যবহার করা হয়েছে।’

ক্রিকবাজে কার্তিক স্বীকার করে নিয়েছেন, চেতনদের ছেঁটে ফেলার সিদ্ধান্তে বেশ অবাক হয়েছেন। তবে এবার নয়া নির্বাচক কমিটিকে বড় চ্যালেঞ্জ সামলাতে হবে বলে জানান। কার্তিক বলেন, 'বেশ আকর্ষণীয় বিষয়। আমার মনে হয়, আমাদের কেউ ভাবেনি যে এরকম হতে পারে। নয়া নির্বাচকদের কাছে নয়া সুযোগ থাকবে। দেখা যাক, পুরো বিষয়টা কীভাবে এগোয়।'

আরও পড়ুন: BCCI sacks selection committee: নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত, চেতন শর্মার নেতৃত্বাধীন নির্বাচক কমিটিকে ছেঁটে ফেলল BCCI

কার্তিক হতবাক হলেও নির্বাচক কমিটি যে বেশিদিন টিকবে না, সেই দেওয়াল লিখনটা গত ১০ নভেম্বর স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল। যেদিন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে হেরে গিয়েছিল ভারত। শুধু সেটাই নয়,গত কয়েক বছরে বড় মঞ্চে একেবারে সাফল্য পায়নি টিম ইন্ডিয়া। গতবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ‘সুপার ১২’ গ্রুপ পর্যায় এবং এশিয়া কাপের ‘সুপার ফোর’ পর্যায় থেকে ছিটকে গিয়েছিল। শুধু দ্বিপাক্ষিক সিরিজ জিতেই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে।

আরও পড়ুন: Virat Kohli fans on BCCI sacking selectors: কোহলির ক্যাপ্টেন্সি কেড়ে নেওয়া নির্বাচকদের তাড়াল BCCI! মজা লুটছেন বিরাট ভক্তরা

তবে ছেঁটে ফেলা শব্দেও আপত্তি আছে কার্তিকের। ক্রিকবাজে তিনি বলেন, 'আমি জানি যে এই ছেঁটে ফেলা শব্দটা ব্যাপকভাবে ব্যবহার করা হয়েছে। তবে আমার মতে, তাঁদের মেয়াদও শেষ হতে চলেছিল। এটা কঠিন কাজ। ৪০-৪৫ জন খেলোয়াড়ের মধ্যে থেকে দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবে এমন ১৫ জনকে বেছে নেওয়ার কাজটা একেবারে সহজ হয় না। ওঁদের কৃতিত্ব প্রাপ্য। ওঁরা ভালো কাজ করেছেন। নয়া নির্বাচকদের কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে হবে।'

বন্ধ করুন