মেয়ে অদিতির সঙ্গে পূজারা।
মেয়ে অদিতির সঙ্গে পূজারা।

মেয়ে অদিতির জন্যই রান্না শেখার সময় পাচ্ছেন না পূজারা

স্বেচ্ছায় গৃহবন্দি থাকার দিনগুলি মোটেও বিরক্তিকর মনে হচ্ছে না ভারতীয় টেস্ট দলের নির্ভরযোগ্য তারকার।

করোনা ভাইরাসের জেরে লকডাউনের সময়টা টিম ইন্ডিয়ার বাকি সতীর্থদের মতো পরিবারের সঙ্গে বাড়িতেই কাটাচ্ছেন চেতেশ্বর পূজারা। তবে স্বেচ্ছায় গৃহবন্দি থাকার দিনগুলি মোটেও বিরক্তিকর মনে হচ্ছে না ভারতীয় টেস্ট দলের নির্ভরযোগ্য তারকার।

সবার হাতে যখন অঢেল সময়, পূজারা নিশ্চিত নন তাঁর দীর্ঘদিনের ইচ্ছা পূরণ করার জন্য পর্যাপ্ত সময় পাবেন কিনা। আসলে চেতেশ্বরের সময় কেটে যাচ্ছে তাঁর মেয়ে অদিতিকে নিয়েই।

পূজারা নিজেই জানান, লকডাউনে বাড়িতে থাকার সময় তাঁর এবং তাঁর স্ত্রী পূজার সারা দিন কাটছে মেয়েকে কেন্দ্র করে। এমনকি তাদের নিজেদের কাজকর্ম করতে হচ্ছে মেয়ের সময় অনুযায়ী।

পূজারা বলেন, 'একটানা বাড়িতে আটকে থাকা বিরক্তির মনে হতে পারে। তবে এমন কঠিন সময়ে বাড়িতে থাকা গুরুত্বপূর্ণ। জীবনের থেকে হতাশার অনুভূতি বড় হতে পারে না। কয়েকদিন পরেই হয়ত সব স্বাভাবিক হয়ে যাবে। আপাতত বাড়িতে সময় কাটানোর জন্য আপনাকে নতুন নতুন কাজ খুঁজতে হবে। যদি মনে করেন যে আমাদের হাতে প্রচুর সময় রয়েছে, তা কিন্তু নয়। আসলে আমাদের মেয়ে অদিতিকে নিয়েই কেটে যাচ্ছে দিনের বেশিরভাগ সময়।'

পরক্ষণেই পূজারা জানান, 'আমাদের সবকিছুই এখন মেয়েকে কেন্দ্র করে। ওর সময় মতো আমাদের বাকি কাজ করতে হচ্ছে। আমাকে ট্রেনিং করতে হয় বিকালে, যখন ও ঘুমোয়। বাকি সময়টায় ও মাতিয়ে রাখে বাড়ি। সারা বাড়ি দৌড়ে বেড়ায়। আমার অনেক দিনের ইচ্ছা রান্না শেখার। তবে তার জন্য সময় পাওয়া যাবে কিনা সন্দেহ। আপাতত বাড়ির কাজে পূজাকে সাহায্য করি। এমনিতে নিজের কাজ নিজে করার অভ্যাস আছে আমার। কাউন্টি খেলার সময় বাড়ির অন্যান্য যা কাজকর্ম থাকে, তা নিজেকেই করতে হতো।'

বন্ধ করুন