বাড়ি > ময়দান > মাঠে দর্শক টানতে নিয়ম বদলের দরকার নেই, মেয়েদের ক্রিকেটে বৈষম্য নিয়ে প্রশ্ন শিখার
শিখা পান্ডে। ছবি- এএফপি।
শিখা পান্ডে। ছবি- এএফপি।

মাঠে দর্শক টানতে নিয়ম বদলের দরকার নেই, মেয়েদের ক্রিকেটে বৈষম্য নিয়ে প্রশ্ন শিখার

  • ছোট বাউন্ডারি, হালকা বলের ব্যবহার প্রভৃতি প্রস্তাবকে অর্থহীন বলে মন্তব্য করলেন ভারতীয় মহিলা দলের তারকা পেসার।

মেয়েদের ক্রিকেটকে আকর্ষণীয় করে তুলতে নিয়ম বদলানোর প্রয়োজন নেই। মাঠে লোক টানার জন্য বাউন্ডারি-পিচ ছোট করা বা বলের ওজন কমানোর মতো রদবদলের পরিবর্তে খেলাটার যথাযথ মার্কেটিং ও একেবারে নিচের স্তর থেকে উন্নতির চেষ্টা করা দরকার। এমনটাই মত ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের তারকা পেসার শিখা পান্ডের।

সাম্প্রতিক সময়ে মেয়েদের ক্রিকেটকে দর্শকদের কাছে আকর্ষণীয় করে তুলতে একাধিক পরিবর্তনের সম্ভাবনা নিয়ে বিস্তর আলোচন চলছে। যার মধ্যে অন্যতম হল, বাউন্ডারি ছোট করা, পিচের দৈর্ঘ্য কমানো এবং তুলনায় ছোট ও হালকা বল ব্যবহার করা প্রভৃতি।

একমাত্র ছোট বল ব্যবহারের প্রস্তাব ছাড়া বাকি পরামর্শগুলিকে নিতান্ত অর্থহীন বলে উল্লেখ করেন শিখা। পর পর বেশ কয়েকটি টুইটে তিনি নিজের মতামত জানান। শিখার মতে, অলিম্পিকের ১০০ মিটারে কোনও মহিলা স্প্রিন্টারকে ছেলেদের মতো কম সময়ে সোনা জেতার জন্য ৮০ মিটার দৌড়তে বলা হয় না। সুতরাং পিচ ছোট করে, মাঠ ছোট করে মেয়েদের ক্রিকেট আয়োজনের দরকার নেই।

শিখা দাবি করেন, সাম্প্রতিক কালে মেয়েদের ক্রিকেটেও পাওয়ার হিটিং দেখা গিয়েছে এবং মাঠে দর্শক আসাও শুরু হয়েছে। তাই, যদি দর্শক টানার কথা ভাবা হয়, তবে মেয়েদের ক্রিকেটের বাণিজ্যিকরণ দরকার। শিখা প্রশ্ন তোলেন, কেন মেয়েদের ম্যাচে ডিআরএস ব্যবহার করা হবে না? স্নিকো, হটস্পটের মতো প্রযুক্তি থেকে কেন বঞ্চিত থাকবে মহিলা ক্রিকেট? এমনকি সব ম্যাচ কেন টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হবে না?

শিখার দাবি, যদি বলের ওজন একই রাখা হয়, তবে তুলনায় ছোট বল ব্যবহারের প্রস্তাব মেনে নেওয়া যায়। কেননা তাতে মেয়েদের গ্রিপ করতে সুবিধা হবে।

বন্ধ করুন