বাংলা নিউজ > ময়দান > Duleep Trophy 2022: সাই কিশোরের ৭ উইকেট, মায়াঙ্কের হাফ-সেঞ্চুরি, ফাইনালের টিকিট কার্যত নিশ্চিত হনুমা বিহারীদের
সাই কিশোর। ফাইল ছবি- পিটিআই।

Duleep Trophy 2022: সাই কিশোরের ৭ উইকেট, মায়াঙ্কের হাফ-সেঞ্চুরি, ফাইনালের টিকিট কার্যত নিশ্চিত হনুমা বিহারীদের

  • পৃথ্বীর শতরানে খেতাবি লড়াইয়ের টিকিট দেখছেন অজিঙ্কা রাহানেরা।

চলতি দলীপ ট্রফির সেমিফাইনালে জাঁকিয়ে বসেছে হনুমা বিহারীর দক্ষিণাঞ্চল ও অজিঙ্কা রাহানের পশ্চিমাঞ্চল। দু'দলই ফাইনালের পথে এক পা বাড়িয়ে রেখেছে বলা যায়।

পশ্চিমাঞ্চল বনাম মধ্যাঞ্চল প্রথম সেমিফাইনাল:
শুরুতে ব্যাট করে পশ্চিমাঞ্চল প্রথম ইনিংসে ২৫৭ রানে অল-আউট হয়। পালটা ব্যাট করতে নেমে মধ্যাঞ্চল তাদের প্রথম ইনিংসে মাত্র ১২৮ রানে গুটিয়ে যায়।

১২৯ রানের লিড হাতে নিয়ে দ্বিতীয় দফায় ব্যাট করতে নামে পশ্চিমাঞ্চল। তৃতীয় দিনে পশ্চিমাঞ্চল তাদের দ্বিতীয় ইনিংসে অল-আউট হয় ৩৭১ রানে। পৃথ্বী শ ১৫টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে ১৪০ বলে ১৪২ রানের আগ্রাসী ইনিংস খেলেন। এছাড়া আরমান জাফর ৪৯ ও হেত প্যাটেল ৬৭ রান করেন। প্রথম ইনিংসে ৫টি উইকেট নেওয়া কুমার কার্তিকেয়া দ্বিতীয় ইনিংসে দখল করেন ৩টি উইকেট।

আরও পড়ুন:- একটিও ম্যাচ না খেলে CSK থেকে বাদ পড়াই তাতায় পূজারাকে, ব্যাট হাতে জবাব দেন রয়্যাল লন্ডন ওয়ান ডে কাপে

জয়ের জন্য ৫০১ রানের বিশাল লক্ষ্যমাত্রা সামনে নিয়ে শেষ ইনিংসে ব্যাট করতে নামে মধ্যাঞ্চল। তারা তৃতীয় দিনের শেষে ২ উইকেটের বিনিময়ে ৩৩ রান তুলেছে। শেষ দিনে জয়ের জন্য মধ্যাঞ্চলের দরকার ৪৬৮ রান। পশ্চিমাঞ্চলের প্রয়োজন ৮টি উইকেট। ম্যাচ ড্র হলেও প্রথম ইনিংসে এগিয়ে থাকার সুবাদে ফাইনালে চলে যাবে রাহানের পশ্চিমাঞ্চল।

দক্ষিণাঞ্চল বনাম উত্তরাঞ্চল দ্বিতীয় সেমিফাইনাল:
দ্বিতীয় সেমিফাইনালে উত্তরাঞ্চলের বিরুদ্ধে একতরফা দাপট দেখাচ্ছে দক্ষিণাঞ্চল। প্রথম ইনিংসে দক্ষিণাঞ্চল ৮ উইকেটে ৬৩০ রান তুলে ব্যাট ছেড়ে দেয়। জবাবে ব্যাট করতে নেমে উত্তরাঞ্চল তাদের প্রথম ইনিংসে অল-আউট হয় ২০৭ রানে। যশ ধুল ৩৯ ও নিশান্ত সিন্ধু ৪০ রানে করেন। সাই কিশোর ৭০ রানের বিনিময়ে ৭টি উইকেট দখল করেন। ২টি উইকেট নেন কৃষ্ণাপ্পা গৌতম।

আরও পড়ুন:- নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৩ ম্যাচে জোড়া শতরান করে রজত পতিদার ফের বোঝালেন, বড় মঞ্চের খেলোয়াড় তিনি, চোখ রাখুন পরিসংখ্যানে

প্রথম ইনিংসের নিরিখে ৪২৩ রানে এগিয়ে থেকেও উত্তরাঞ্চলকে ফলো-অন করায়নি দক্ষিণাঞ্চল। বদলে নিজেরাই ব্যাট করতে নামে। তারা তৃতীয় দিনের শেষে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ১ উইকেটের বিনিময়ে ১৫৭ রান তোলে। ৭৭ রান করে আউট হন রোহন। মায়াঙ্ক আগরওয়াল ৫৩ রানে নট-আউট থাকেন। ৭৬ বলের ইনিংসে মায়াঙ্ক ৬টি চার মারেন। উত্তরাঞ্চলের থেকে এখনই ৫৮০ রানে এগিয়ে রয়েছে হনুমা বিহারীর দক্ষিণাঞ্চল। শেষ দিনে দক্ষিণাঞ্চল ব্যাট ছেড়ে দিলেও এত রান তাড়া করে জয় তুলে নেওয়া সম্ভব নয় উত্তরাঞ্চলের পক্ষে। সুতরাং, ফাইনালের টিকিট কার্যত নিশ্চিত করে ফেলেছে দক্ষিণাঞ্চল।

বন্ধ করুন