বাংলা নিউজ > ময়দান > Duleep Trophy Final: দলীপ ফাইনালে ডাবল সেঞ্চুরি করে ৬০ বছর আগের রেকর্ড ভাঙলেন যশস্বী, বড় রান নাইট অধিনায়কের ব্যাটেও
দ্বিশতরানের পরে যশস্বী। ছবি- বিসিসিআই।

Duleep Trophy Final: দলীপ ফাইনালে ডাবল সেঞ্চুরি করে ৬০ বছর আগের রেকর্ড ভাঙলেন যশস্বী, বড় রান নাইট অধিনায়কের ব্যাটেও

  • চলতি দলীপ ট্রফির তিন ম্যাচে ২টি ডাবল সেঞ্চুরি করলেন যশস্বী জসওয়াল।

উত্তরাখণ্ডের বিরুদ্ধে রঞ্জি ট্রফির কোয়ার্টার ফাইনালে সেঞ্চুরি (১০৩), উত্তরপ্রদেশের বিরুদ্ধে সেমিফাইনালে জোড়া শতরান (১০০ ও ১৮১), মধ্যপ্রদেশের বিরুদ্ধে রঞ্জি ফাইনালে হাফ-সেঞ্চুরি (৭৮), উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বিরুদ্ধে দলীপ ট্রফির কোয়ার্টার ফাইনালে ডাবল সেঞ্চুরি (২২৮)-র পরে এবার দক্ষিণাঞ্চলের বিরুদ্ধে দলীপের ফাইনালে দুর্দান্ত দ্বিশতরান যশস্বী জসওয়ালের। ঘরোয়া ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটে মুম্বইয়ের তরুণ ওপেনারের স্বপ্নের দৌড় জারি। এমন অসাধারণ ধারাবাকিতায় জসওয়াল নিঃসন্দেহে ভারতের টেস্ট দলের ঢোকার দাবি জানিয়ে রাখলেন।

দক্ষিণাঞ্চলের বিরুদ্ধে দলীপ ট্রফির ফাইনালের প্রথম ইনিংসে মাত্র ১ রান করে আউট হন যশস্বী। দ্বিতীয় ইনিংসে খামতি পুষিয়ে দেন সুদে-আসলে। তৃতীয় দিনের শেষে যশস্বী অপরাজিত থাকেন ২০৯ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলে। ২৪৪ বলের আগ্রাসী ইনিংসে জসওয়াল ২৩টি চার ও ৩টি ছক্কা মারেন। সুতরাং, চলতি দলীপ ট্রফির তিন ম্যাচে যশস্বীর এটি দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি।

জসওয়াল ৭টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে মাত্র ৫৬ বলে ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন। তিনি শতরানের গণ্ডি টপকান ১১টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে ১১৯ বলে। যশস্বী ১৫০ রান পূর্ণ করেন ১৮টি চার ও ৩টি ছক্কার সাহায্যে ১৫৯ বলে। তিনি দ্বিশতরানের গণ্ডি টপকে যান ২৩টি চার ও ৩টি ছক্কার সাহায্যে ২৩৫ বলে।

ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া দ্বিতীয় টি-২০ ম্যাচের লাইভ আপডেটে চোখ রাখতে ক্লিক করুন

উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, দক্ষিণাঞ্চলের বিরুদ্ধে এই ম্যাচে পশ্চিমাঞ্চলের হয়ে ডাবল সেঞ্চুরির করার সুবাদে যশস্বী অজিত ওয়াদেকরের ৬০ বছর আগের দুর্দান্ত এক রেকর্ড ভেঙে দেন। সব থেকে কম বয়সী ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে কোনও ফার্স্ট ক্লাস টুর্নামেন্টের ফাইনালে দ্বিশতরান করেন জসওয়াল। আগে এই রেকর্ড ছিল ওয়াদেকরের। তিনি ১৯৬১-৬২ মরশুমের রঞ্জি ফাইনালে তৎকালীন বম্বের হয়ে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন ২০ বছর ৩৫৪ দিন বয়সে। যশস্বী এই ম্যাচে ডাবল সেঞ্চুরি করেন ২০ বছর ২৬৯ দিন বয়সে। উল্লেখ্য, ওয়াদেকর রাজস্থানের বিরুদ্ধে সেই ম্যাচে ২৩৫ রান করে আউট হয়েছিলেন।

আরও পড়ুন:- জাদেজাকে দিয়ে গুজরাট থেকে গিলকে দলে নিচ্ছে CSK, এমন জল্পনা কি সত্যি? কী বলছে দুই ফ্র্যাঞ্চাইজি?

যশস্বীর পাশাপাশি দলীপ ফাইনালে ব্যাট হাতে নজর কাড়েন শ্রেয়স আইয়ারও। দ্বিতীয় ইনিংসে ২টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে ১১৩ বলে ৭১ রান করে আউট হন নাইট অধিনায়ক। শ্রেয়স প্রথম ইনিংসে ৩৭ রান করে আউট হন।

দলীপ ট্রফি ২০২২ ফাইনাল ম্যাচের গতিপ্রকৃতি:
পশ্চিমাঞ্চলের ২৭০ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণাঞ্চল তাদের প্রথম ইনিংসে ৩২৭ রান তোলে। প্রথম ইনিংসের নিরিখে ৫৭ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় দফায় ব্যাট করতে নামে পশ্চিমাঞ্চল। তারা তৃতীয় দিনের শেষে তাদের দ্বিতীয় ইনিংসে ৩ উইকেটের বিনিময়ে ৩৭৬ রান তুলেছে। সুতরাং, পশ্চিমাঞ্চলের হাতে আপাতত ৩১৯ রানের লিড রয়েছে।

বন্ধ করুন