বাংলা নিউজ > ময়দান > Durand Cup 2023: ডুরান্ডে হেরে মোহনবাগান সচিবকে 'নোংরা' কথা, জনসমক্ষে ক্ষমা চাইলেন ইস্টবেঙ্গল কর্তা

Durand Cup 2023: ডুরান্ডে হেরে মোহনবাগান সচিবকে 'নোংরা' কথা, জনসমক্ষে ক্ষমা চাইলেন ইস্টবেঙ্গল কর্তা

ক্ষমা চাইলেন ইস্টবেঙ্গল কর্তা। 

ডুরান্ডের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে মোহনবাগানকে হারায় ইস্টবেঙ্গল। আবেগের বশে বাগান কর্তাদের সম্পর্কে খারাপ মন্তব্য করেন ইস্টবেঙ্গল কর্তা বীরেন সাহা। চাপে পড়ে ক্ষমা চাইলেন তিনি।

শুভব্রত মুখার্জি: মোহনবাগান বনাম ইস্টবেঙ্গলের ডার্বি মানেই আলাদা উত্তেজনা থাকে। ইদানিং সময়ে সেই উত্তেজনা কিছুটা হলেও বৃদ্ধি পেয়েছে। সদ্য হয়ে যাওয়া ডুরান্ড ফাইনালের ডার্বির পরে পরিস্থিতি যেন আরও ঘোরালো হয়েছে। ডুরান্ডের গ্রুপের ম্যাচে ১৬৫৭ দিন বাদে ইস্টবেঙ্গল, মোহনবাগানকে হারিয়ে ডার্বি জিতেছিল। দীর্ঘদিন বাদে ডার্বি জেতার ফলে আবেগের বিস্ফোরণ ঘটেছিল ইস্টবেঙ্গল জনতার। সেই সময়েই ডুরান্ড ফাইনালের আগেই মোহনবাগান কর্তাদের উদ্দেশ্য করে সোশ্যাল মিডিয়াতেই কুকথা বলে ফেলেছিলেন ইস্টবেঙ্গল কর্তা বীরেন সাহা। দুই ক্লাবের মধ্যে চলতে থাকা উত্তেজনার পরিস্থিতিকে শান্ত করতে এবার সেই বিষয়েই জনসমক্ষে ক্ষমা চাইলেন তিনি।

মোহনবাগান সচিবকে নিয়ে ফেসবুকে খারাপ মন্তব্য করেছিলেন বীরেন সাহা। বিষয়টি নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন ইস্টবেঙ্গল কর্তা বীরেন সাহা। তিনি বলেন, ‘মোহনবাগান সচিব বলেছিলেন আমরা নাকি পালিয়ে গিয়েছি। ওটা শুনে আমি আমার মেজাজ ধরে রাখতে পারিনি।আমার মাথার ঠিক ছিল না। আমি সেই কারণে ফেসবুকে একটা মন্তব্য করেছিলাম। যা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। আমি পরে সেটা ডিলিটও করে দিই। আমি এরপর সিদ্ধান্ত নিই মিটিংয়ে বলব আমার এটা বলা উচিত হয়নি। আমি দুঃখিত এমন আপত্তিকর মন্তব্য করার জন্য। ওনার বোঝা উচিত ওয়াকওভার দেওয়া আর পালানো এক জিনিস নয়। আমার ভুলের জন্য ক্লাব আমার বিরুদ্ধে যা সিদ্ধান্ত নেবে তা আমি মাথা পেত নেব। আমি ক্লাবকে চিঠি দিয়েছি এই বিষয়টি নিয়ে।'

তবে ডুরান্ড ফাইনালের পরে দুই দলের মধ্যে এখনও যে চাপা উত্তেজনা রয়েছে তা আরও একবার ধরা পড়ল লাল হলুদ কর্তা দেবব্রত সরকারের কথাতে। তিনি জানিয়েছেন ‘মোহনবাগানের সমর্থকদের অনেকে আমাদের ক্লাবকে উদ্দেশ্য করে ,কর্মসমিতিকে উদ্দেশ্যে অনেক আপত্তিকর মন্তব্য করেছে। অতীতে আমরা দেখেছি এই ধরনের ঘটনা যারা ঘটিয়েছে তাদেরকে পুলিশে তুলে দেওয়া হয়েছিল। এখন ওসব করা হোক তা আমি চাইছি না, তবে তাদের যেন সতর্ক করা হয় এটাই চাইব।’

ডুরান্ড ফাইনালে কলকাতা ডার্বির পরে মোহনবাগান সুপার জায়ান্টসের সমর্থকদের হাতে আক্রান্ত হতে হয় ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের একাংশকে। এমন অভিযোগ করা হয়েছে ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের তরফে। ঘটনা নিয়ে তাঁরা মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হবেন বলে ঠিক করেছেন। সাংবাদিক বৈঠক সেকথাও জানাতে ভোলেননি তারা।

১২ অগস্ট অর্থাৎ ডুরান্ড কাপের গ্রুপ পর্যায়ের ডার্বির আগে টিকিট বন্টন নিয়ে লাল হলুদ কর্তারা ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছিলেন। যার পরিপ্রেক্ষিতে দেবব্রত সরকার জানান তাঁরা ডার্বির টিকিট নেবেন না। এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে মোহনবাগান সচিব ইস্টবেঙ্গলের পালিয়ে যাওয়া নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন। যার উত্তর দিতে গিয়ে বীরেন সাহা একটি আপত্তিকর মন্তব্য করে বসেছিলেন। যা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছিল।

বন্ধ করুন