বাংলা নিউজ > ময়দান > ENG vs SA: রিলির দুরন্ত ব্যাটিং, শামসির আগুনে বোলিং,সিরিজে সমতা ফেরাল প্রোটিয়ারা

ENG vs SA: রিলির দুরন্ত ব্যাটিং, শামসির আগুনে বোলিং,সিরিজে সমতা ফেরাল প্রোটিয়ারা

দুরন্ত ছন্দে ছিলেন রিলি রসৌ।

৫৫ বলে ৯৬ করে অপরাজিত থাকেন রিলি রসৌ। মাত্র ৪ রানের জন্য সেঞ্চুরি হয়নি তাঁর। যাইহোক তাঁর হাত ধরেই ৩ উইকেট হারিয়ে নির্দিষ্ট ২০ ওভারে ২০৭ রান করে দক্ষিণ আফ্রিকা।

একেবারে শেয়ানে শেয়ানে কুলোকুলি। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বড় রানের ব্যবধানে পরাজিত হতে হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকাকে। দ্বিতীয় ম্যাচে অবশ্য পাল্টা পাটকেল ছুড়ল দক্ষিণ আফ্রিকা। ইংল্যান্ডকে নাস্তানাবুদ করে দুরন্ত ছন্দে ঘুুরে দাঁড়াল প্রোটিয়ারা। ৫৮ রানে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে জয় ছিনিয়ে নিলেন কুইন্টন ডি'ককরা।

রিলি রসৌ-এর ব্যাট হাতে ঝড় আর তাবরেজ শামসির আক্রমণাত্মক বোলিংয়ের হাত ধরেই দুরন্ত কামব্যাক করল দক্ষিণ আফ্রিকা। টসে জিতে প্রথমে প্রোটিয়াদের ব্যাট করতে পাঠায় ইংল্যান্ড। কুইন্টন ডি'কক মাত্র ১৫ করে আউট হয়ে যান। তখন দলের রান ছিল ৩৯। তবে আর এক ওপেনার রেজা হেন্ড্রিক্স এবং রিলি রসৌ দলের হাল ধরেন। হেন্ড্রিক্স আগ্রাসী মেজাজে অর্ধশতরান করেন। ৩২ বলে ৫৩ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলে অবশ্য রিচার্ড গ্লিসনের বলে জনি বেয়ারস্টোর হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন।

আরও পড়ুন: ১০টি ছক্কায় মাত্র ৩৭ বলে ১০৬ রান, মইন-বেয়ারস্টো জুটির তাণ্ডবলীলার ভিডিয়ো দেখুন

তবে রিলি রসৌ লড়াই জারি রাখেন। তিনি ৫৫ বলে ৯৬ করে অপরাজিত থাকেন। মাত্র ৪ রানের জন্য সেঞ্চুরি হয়নি তাঁর। যাইহোক ৩ উইকেট হারিয়ে নির্দিষ্ট ২০ ওভারে ২০৭ রান করে দক্ষিণ আফ্রিকা। ইংল্যান্ডে মইন আলি, গ্লেসন এবং ক্রিস জর্ডন ১টি করে উইকেট নিয়েছেন।

আরও পড়ুন: ঘরের মাঠে সবচেয়ে বেশি রান ইংল্যান্ডের, দ্রুততম ৫০ মইনের

জবাবে ব্যাট করতে নামলে শামসির আগুনে বোলিং এবং অ্যান্ডিলে ফেলুকাউ আর লুঙ্গি এনগিদির ছটকা সামলাতে পারেনি ইংল্যান্ড। ৪৮ রানে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় তারা। ইংল্যান্ডের হয়ে ব্যাট হাতে আহামরি পারফরম্যান্স কেউ করতে পারেননি। জনি বেয়ারস্টো সর্বোচ্চ ৩০ রান করেছেন। বাকিদের অবস্থা তথৈবচ।

জেসন রয় ২০ (২২ বলে), বাটলার ২৯ (১৪ বলে), মইন আলি ২৮ (১৭ বলে) করলেও বাকিরা তো ২০ রানের গণ্ডি টপকাতে পারেননি। লিয়াম লিভিংস্টোন ১৮ করেছেন। বাকিরা এক অঙ্কেই রয়ে গিয়েছেন।

ইংল্যান্ড টপ অর্ডারকে তিন উইকেট নিয়ে নাস্তানাবুদ করেন শামসি। অন্য দিকে লোয়ার অর্ডারকে এনগিদি এবং ফেলুকাউ মিলে দ্রুত গুটিয়ে দেন। ফলে মাত্র ১৬.৪ ওভারে ১৪৯ রানেই গুটিয়ে যায় ইংল্যান্ডের ইনিংস। এই জয়ের হাত ধরে সিরিজে সমতা ফেরায় দক্ষিণ আফ্রিকা। রবিবার সিরিজ নির্ণায়ক ম্যাচ খেলতে নামবে দুই দল।

বন্ধ করুন