বাংলা নিউজ > ময়দান > প্রিমিয়র লিগের হল অফ ফেমে জায়গা করে নিলেন ম্যান ইউনাইটেড যুগল কিন ও ক্যান্টনা
ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড জার্সি গায়ে রয় কিন ও এরিক ক্যান্টনা। ছবি- টুইটার।
ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড জার্সি গায়ে রয় কিন ও এরিক ক্যান্টনা। ছবি- টুইটার।

প্রিমিয়র লিগের হল অফ ফেমে জায়গা করে নিলেন ম্যান ইউনাইটেড যুগল কিন ও ক্যান্টনা

  • নব্বইয়ের দশকে কিন ও ক্যান্টনা দুইজনেই ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের ভাগ্য পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।

তৃতীয় ও চতুর্থ সদস্য হিসাবে প্রিমিয়র লিগের হল অফ ফেমে জায়গা করে নিলেন নব্বইয়ের দশকে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে লিগ কাঁপানো জুটি রয় কিন ও এরিক ক্যান্টনা। একাধিক লিগ খেতাব জেতার পাশাপাশি ইউনাইটেডের সাফল্যের পিছনে এই দুইজনের অবদান অনস্বীকার্য।

এ বছর প্রিমিয়র লিগের মোট আটজন ফুটবলারকে হল অফ ফেমে সামিল করার কথা আগেই জানিয়েছিল প্রিমিয়র লিগ কর্তৃপক্ষ। সেই অনুযায়ী প্রথম দুই সদস্য হিসাবে অ্যালান শিরার ও থিয়রি অঁরির নাম কিছুদিন আগেই ঘোষণা করা হয়। এবার সেই তালিকায় নাম লেখালেন ইউনাইটেডের দুই প্রাক্তন তারকা।

ফরাসি ফুটবলার ক্যান্টনাকে সই করানো অনেকের মতেই ইউনাইটেড ইতিহাসের সবচেয়ে বড় সিদ্ধান্ত। ক্যান্টনার জাদুতে ভর করেই একের পর এক লিগ জিততে শুরু করে রেড ডেভিলসরা। ১৫৬ ম্যাচে ৭০ গোল ও ৫৬ অ্যাসিস্টের পাশাপাশি তিনি মোট চারটি লিগ খেতাব জেতান। হল অফ ফেমে সামিল হওয়ার পর ‘কিং অফ ম্যাঞ্চেস্টার’ নিজের স্বভাবচিত ভঙ্গিমায় জানান, ‘আমি খুবই খুশি এবং গর্বিত, তবে সামান্যটুকুও অবাক নই। আমার বাছাই না হলে বরং আমি বেশি অবাক হতাম।’

সেই তুলনায় কিন কিছুটা বিনয়ী। প্রাক্তন ইউনাইটেড অধিনায়ক বলেন, ‘এই সম্মান পেয়ে আমি নিজেকে খুবই ভাগ্যবান মনে করছি। তবে এটা শুধুমাত্র আমার সতীর্থদের জন্যই সম্ভব হয়েছে।’ ইউনাইটেডের হয়ে সই করাকেই নিজের কেরিয়ারের সবচেয়ে বড় সিদ্ধান্ত বলে মনে করেন এই আইরিশ ফুটবলার।

বন্ধ করুন