বাংলা নিউজ > ময়দান > ইউরোপিয়ান সুপার লিগ ঘিরে ফের বিতর্কিত মন্তব্য রিয়াল মাদ্রিদ সভাপতি ফ্লোরেনটিনো পেরেজের
পেরেজ। ছবি- রয়টার্স (REUTERS)
পেরেজ। ছবি- রয়টার্স (REUTERS)

ইউরোপিয়ান সুপার লিগ ঘিরে ফের বিতর্কিত মন্তব্য রিয়াল মাদ্রিদ সভাপতি ফ্লোরেনটিনো পেরেজের

  • রিয়াল মাদ্রিদ-সহ ইউরোপিয়ান সুপার লিগে অংশগ্রহণকারী বাকি দলগুলি যারা এখনও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও ইউরোপা লিগে খেলছে, তাঁদের বরখাস্ত করার দাবি উঠলেও, তেমন কিছুই হবে না বলে মনে করছেন ফ্লোরেনটিনো পেরেজ।

ইউরোপের বড় দলগুলিকে নিয়ে নতুন টুর্নামেন্ট ইউরোপিয়ান সুপার লিগের ঘোষণা হয়েছে মাত্র কিছুদিন আগেই। সমর্থক এবং প্রাক্তন ফুটবলারদের অধিকাংশই এই সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ জানালেও রিয়াল মাদ্রিদ সভাপতি ফ্লোরেনটিনো পেরেজ মনে করছেন বর্তমান পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখ সুপার লিগই ফুটবলের ভবিষৎ।

স্পেনের এক টিভি শোতে কথা বলার সময় পেরেজ জানান, ‘যখনই নতুন কিছু করার চেষ্টা করা হয়, লোকেরা তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে। দিনে দিনে দর্শক সংখ্যা কমছে, তার সাথে সাথেই কমছে টিভি স্বত্ব থেকে আয়ও। তরুণ প্রজন্ম আর খেলা দেখতে তেমন ইচ্ছুক নয়, কারণ খেলার গুনগত মান কমে যাচ্ছে এবং তাঁদের বিনোদনের জন্য আরও অনেক কিছু রয়েছে। আমরা সকলেই গভীর বিপদের সম্মুখীন। এই কঠিন পরিস্থিতিতে ফুটবলকে বাঁচাতেই আমাদের এই পদক্ষেপ।’

বিতর্কের মাঝে ইতিমধ্যেই ইউয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অংশগ্রহণকারী দলের সংখ্যা ৩২ থেকে বাড়িয়ে ৩৬ করার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। ২০২৪ সাল থেকে দেখা যাবে এই নতুন ফর্ম্যাটের। তবে সে বিষয়ে পেরেজ খুব বেশি আগ্রহী নন। বরং তিনি মনে করছেন চ্যাম্পিয়নস লিগের কোনও ভবিষৎই নেই। ‘বিগত কয়েক মরশুমে আমরা প্রায় পাঁচ বিলিয়ন ইউরো (ভারতীয় মুদ্রায় ৪৫,১৯২কোটি) লোকসানের সম্মুখীন হয়েছি। রিয়াল মাদ্রিদের ক্ষতির পরিমাণ দু'মরশুমে ৪০০ মিলিয়ন ইউরো (ভারতীয় মুদ্রায় ৩,৬১৪ কোটি)। চ্যাম্পিয়নস লিগ নিয়ে আকর্ষন দিন দিন কমছে এবং ২০২৪ থেকে শুরু হওয়া টুর্নামেন্টের নতুন ফর্ম্যাট খুবই বাজে। ততদিনে আমরা সম্পূর্ণ নিস্ব হয়ে যাব। যখন টেলিভিশন ছাড়া অর্থ উপার্জনের আর কোন উপায় নেই, তখন আরও বেশি করে ভালো ম্যাচ দেখানোই এ সমস্যার একমাত্র সমাধান। বিশ্বের বড় বড় দলগুলি যখন সুপার লিগে একে অপরের বিরুদ্ধে রোজ খেলবে, তখন আরও বেশি সংখ্যক দর্শকরা ম্যাচ দেখবেন। আমাদের সবকটি ক্লাবেরই মনে হয় চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলার পরিবর্তে এটাই আমাদের বেশি লাভদায়ক।’

১৩টি ট্রফি-সহ চ্যাম্পিয়নস লিগ ইতিহাসের সবচেয়ে সফল দল রিয়াল মাদ্রিদ। এ মরশুমেও তাঁরা টুর্নামেন্টের শেয চারে রয়েছে। তবে মাদ্রিদ-সহ ইউরোপিয়ান সুপার লিগে অংশগ্রহণকারী বাকি দলগুলি যারা এখনও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও ইউরোপা লিগে খেলছে, তাঁদের বরখাস্ত করার দাবি উঠলেও, তেমন কিছুই হবে না বলে মনে করছেন পেরেজ। বারংবার বির্তকের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা পেরেজের এই মন্তব্যের জেরে কি বিতর্কের সৃষ্টি হয়, এখন সেটাই দেখার।

বন্ধ করুন