বাংলা নিউজ > ময়দান > চারদিক থেকে বিদ্ধ করা হয়েছিল, ২০১৪-র স্মৃতি এখনও যন্ত্রণা দেয় বিরাটকে
বিরাট কোহলি।
বিরাট কোহলি।

চারদিক থেকে বিদ্ধ করা হয়েছিল, ২০১৪-র স্মৃতি এখনও যন্ত্রণা দেয় বিরাটকে

  • ২০১৪ সালে ইংল্যান্ড সফরে গিয়ে খুব খারাপ পারফরম্যান্স করেছিলেন বিরাট। ৫টি টেস্ট খেলে তাঁর রান ছিল মাত্র ১৩৪। গড় ১৩-র সামান্য বেশি। পাঁচটি টেস্টের দশ ইনিংসে বিরাটের সংগ্রহ ছিল যথাক্রমে ১, ৮, ২৫, ০, ৩৯, ২৮, ০, ৭, ৬ এবং ২০।

২০১৪ সালে ইংল্যান্ড সফর বিরাট কোহলির জন্য একটি অন্ধকার অধ্যায়। আর এই অধ্যায়ে তিনি সমালোচনায় জেরে রীতিমতো ক্ষতবিক্ষত হয়েছিলেন। সেই সময়ের যন্ত্রণার কথা এখনও ভুলতে পারেননি বিরাট। এখনও তা একেবারে টাটকা। সম্প্রতি একটি চ্যানেলের হয়ে বিরাটের সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন দীনেশ কার্তিক। সেই সময়েই কার্তিকের কাছে নিজের যন্ত্রণার কথা উজাড় করে দেন ভারত অধিনায়ক।

২০১৪ সালে ইংল্যান্ড সফরে গিয়ে খুব খারাপ পারফরম্যান্স করেছিলেন বিরাট। ৫টি টেস্ট খেলে তাঁর রান ছিল মাত্র ১৩৪। গড় ১৩-র সামান্য বেশি। পাঁচটি টেস্টের দশ ইনিংসে বিরাটের সংগ্রহ ছিল যথাক্রমে ১, ৮, ২৫, ০, ৩৯, ২৮, ০, ৭, ৬ এবং ২০। বিরাটের এই পারফরম্যান্সের জেরে সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়। বিরাটের দাবি, সেই খারাপ সময়ে হাতেগোনা দু'একজনকে বাদ দিলে কাউকে পাশে পাননি তিনি। এই অন্ধকার থেকে বের হওয়ার জন্য কেউ তাঁর দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেননি।

যদিও সেই বছরের শেষের দিকেই বিরাট কোহলি অস্ট্রেলিয়া সফরে গিয়ে অসাধারণ পারফরম্যান্স করেন। চার টেস্টে তাঁর মোট রান ছিল ৭০০। বিরাট কোহলি পুরনো সেই প্রসঙ্গ তুলেই দীনেশ কার্তিককে বলেছেন, ‘সত্যি কথা বলতে, অস্ট্রেলিয়া সফরের আগে আমি প্রতিটা বিদেশ সফরকেই ইঞ্জিনিয়ারিং পরীক্ষার মতো দেখতে শুরু করেছিলাম। যে পরীক্ষার আমাকে যে ভাবেই হোক পাস করতেই হবে। এবং আমি দেখিয়ে দিতে চেয়েছিলাম, আমিও সেই লেভেলে খেলতে পারি।’

এরই সঙ্গেই বিরাট যোগ করেছেন, ‘সেই সময়ে আমি বুঝেছিলাম, একবার যদি তুমি ব্যর্থ হও, তখন খুব কম লোক আছে, যারা তোমাকে সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসবে। আমিও খুব কম লোক পেয়েছি, যারা আমাকে এসে বলেছিল, চল একসঙ্গে পরিশ্রম করি এবং তুমি তোমার ছন্দে ফেরার চেষ্টা করো। বরং চারদিক থেকে আমাকে সমালোচনায় বিদ্ধ করা হয়েছিল। সেই সময়ে আমি বুঝেছিলাম এই লোকেদের কাছে নিজেকে প্রমাণ করার কিছু নেই। আমাকে শুধু নিজের খেলাটা খেলে যেতে হবে।’

প্রসঙ্গত, ২০২১ ইংল্যান্ড সফরেও বিরাটের পারফরম্যান্স এখনও পর্যন্ত খুব ভাল, এমনটা বলা যাবে না। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়ন ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সে ভাবে আহামরি কিছু করে উঠতে পারেননি ভারত অধিনায়ক। আর নাটিংহ্যামে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে এক বল খেলেই শূন্য রানে আউট হয়ে গিয়েছেন বিরাট কোহলি।

বন্ধ করুন