বাংলা নিউজ > ময়দান > দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ভারতকেই ফেভারিট বলছেন প্রাক্তন প্রোটিয়া অধিনায়ক
টিম ইন্ডিয়া।
টিম ইন্ডিয়া।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ভারতকেই ফেভারিট বলছেন প্রাক্তন প্রোটিয়া অধিনায়ক

  • দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন টেস্ট অধিনায়ক আলি বাকার মনে করেন, টেস্ট সিরিজে জয় না পাওয়ার যন্ত্রণা ঘোচানোর বড় সুযোগ রয়েছে ভারতের সামনে। কারণ ভারতের এখন সেরা পেস আক্রমণ রয়েছে

রবিবার সেঞ্চুরিয়ানে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে বক্সিং ডে টেস্ট খেলতে নামছে ভারত। ২৬ ডিসেম্বর থেকে বিরাট কোহলি ব্রিগেডের পরিসংখ্যান বদলানোর লড়াই। সেই লড়াইয়ে ভারতকেই ফেভারিট বলছেন নিউজিল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক আলি বাকার। বিশেষ করে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে প্রথম দু'টি টেস্টে এগিয়ে রয়েছে ভারত। এমনটাই দাবি করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন অধিনায়ক।

বর্ডার-গাভাসকর ট্রফিতে অস্ট্রেলিয়াকে ২-১ ব্যবধানে পরাজিত করেছিল ভারত। তার পর ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেই ২-১ এগিয়ে ছিল তারা। শেষ টেস্ট করোনার জন্য বাতিল হয়ে গিয়েছিল। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর নিউজিল্যান্ডকে ১-০ হারিয়েছে ভারত। তবে দক্ষিণ আফ্রিকায় ভারত এখনও পর্যন্ত কোনও টেস্ট সিরিজ জিততে পারেনি। এই সিরিজটি তাই ভারতের কাছে বড় চ্যালেঞ্জের।

দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন টেস্ট অধিনায়ক আলি বাকার মনে করেন, টেস্ট সিরিজে জয় না পাওয়ার যন্ত্রণা ঘোচানোর বড় সুযোগ রয়েছে ভারতের সামনে। কারণ ভারতের এখন সেরা পেস আক্রমণ রয়েছে।

নিউজ ১৮-কে বাকার বলেছেন, ‘প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিয়নে খেলা হবে, যা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৫০০০ ফুট উপরে এবং জোহানেসবার্গের ওয়ান্ডারার্সে হবে দ্বিতীয় টেস্ট। যা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৬০০০ ফুট উপরে। এই দু'টি টেস্ট মাঠের বিরল পরিবেশ এবং ওয়ান্ডারার্স ও সুপার স্পোর্ট পার্কের দ্রুত বাউন্সি পিচগুলি সাধারণত ফাস্ট বোলারদের পক্ষে থাকে। বর্তমান ভারতীয় দলে গত ত্রিশ বছরে আমার দেখা সেরা পেস আক্রমণ রয়েছে। অতএব ভারত প্রথম দু'টি টেস্ট ম্যাচের জন্য ফেভারিট হিসাবে শুরু করবে।’

ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে টেস্ট সিরিজটি আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপেরই অংশ। সেঞ্চুরিয়ানে প্রথম টেস্টটি ২৬-৩০ ডিসেম্বর সুপারস্পোর্ট পার্কে হবে। দ্বিতীয় টেস্ট জোহানেসবার্গের ওয়ান্ডারার্সে অনুষ্ঠিত হবে ৩-৭ জানুয়ারি, তৃতীয় টেস্ট হবে ১১-১৫ জানুয়ারি। কেপটাউনের নিউল্যান্ডসে।

বন্ধ করুন