দর্শকশূন্য গ্যালারিতে ফুটবল ম্যাচ। সমর্থকদের অভাবে যাতে ফুটবলারদের উৎসাহে ভাটা না পড়ে, তাই এফসি সিওল অভিনব উদ্যোগ নেয়। তবে তাদের সেই ব্যবস্থাপণাই শেষমেশ বড়সড় বিতর্ক বাধিয়ে বসবে, তা বোধহয় দুঃস্বপ্নেও ভাবেনি দক্ষিণ কোরিয়ার প্রখ্যাত ক্লাবটি।

বুন্দেশলিগা শুরু হওয়ার আগেই রুদ্ধদ্বার স্টেডিয়ামে শুরু হয়ে গিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার জাতীয় ফুটবল লিগ। লকডাউন পরবর্তী সময়ে কে লিগে প্রথম হোম ম্যাচ ছিল এফসি সিওলের। গোয়াংজু এফসির বিরুদ্ধে সেই ম্যাচের সময় গ্যালারির দর্শকাসনে কিছু পুতুল সাজিয়ে রেখেছিল আয়োজকরা। তাদের জানা ছিল না যে, মহিলাদের আদলে তৈরি পুতুলগুলি আসলে সেক্স ডল।

সঙ্গত কারণেই গ্যালারিতে সেক্স ডলের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তে বিশেষ সময় লাগেনি। তার পরেই অবশ্য টনক নড়ে ক্লাব কর্তৃপক্ষের। এফসি সিওলের তরফে রীতিমতো বিজ্ঞপ্তি জারি করে ক্ষমা চাওয়া হয় এবং জানিয়ে দেওয়া হয় যে, অজ্ঞতার কারণে ঘটা এই দুর্ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না।

ক্লাবের তরফে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, 'আমরা সমর্থকদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। আমরা অত্যন্ত দুঃখিত। এমন কঠিন সময়ে আমরা পরিবেশটাকে হালকা রাখার চেষ্টা করেছিলাম। কিছু করার আগে আমাদের অবশ্যই ভাবনা-চিন্তার প্রয়োজন ছিল। নিশ্চয়তা দিচ্ছি যে, ভবিষ্যতে এমন কিছু কখনই ঘটবে না।'

এফসি সিওলের পক্ষ থেকে সাফাই দেওয়া হয়, যে সংস্থাকে পুতুলের বরাত দেওয়া হয়েছিল, তারা সেক্স ডল বানায়, তা ক্লাবের জানা ছিল না।

বন্ধ করুন