বাংলা নিউজ > ময়দান > যেন নিজের ছেলের কিছু হয়েছে- পন্তের দুর্ঘটনায় আবেগপ্রবণ প্রাক্তন নির্বাচক প্রধান

যেন নিজের ছেলের কিছু হয়েছে- পন্তের দুর্ঘটনায় আবেগপ্রবণ প্রাক্তন নির্বাচক প্রধান

 ঋষভ পন্ত।

পন্তের এখন যা পরিস্থিতি, তাতে ২০২৩ সালে তাঁর পক্ষে পেশাদার ক্রিকেটে ফেরার সম্ভাবনা কার্যত নেই। আইপিএল খেলার তো কোনও সম্ভাবনাই নেই। এমন কী ঘরের মাঠে আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে যে একদিনের বিশ্বকাপ হবে, তাতেও সম্ভবত পন্ত খেলতে পারবেন না।

ভারতের তারকা উইকেটকিপারের গাড়ি দুর্ঘটনার ঘটনায় গভীর ভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রাক্তন প্রধান নির্বাচক এমএসকে প্রসাদ। ইতিমধ্যে মুম্বইতে পন্তের তিনটি সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে। তিনি সেরে উঠছেব ধীরে ধীরে। তবে তিনি কবে ২২ গজে ফিরবেন, তা নিয়ে তীব্র সংশয় রয়েছে।

ভারতীয় উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান পন্ত গত বছর ৩০ ডিসেম্বর একটি ভয়াবহ গাড়ি দুর্ঘটনাযর কবলে পড়েন। সবচেয়ে বড় কথা ভয়াবহ দুর্ঘটনার কবলে পড়লেও, তিনি নিজে অলৌকিক ভাবে বেঁচে যান। তবে এই দুর্ঘটনার ফলে জাতীয় দলের বেশ কিছু বড় টুর্নামেন্ট মিস করবেন। সেই সঙ্গে দিল্লি ক্যাপিটালসের (ডিসি) অধিনায়ক ২০২৩ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগেও (আইপিএল) খেলতে পারবেন না। যেটা পন্তের কাছেও নিঃসন্দেহে বড় ধাক্কা।

বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম প্রতিভাবান এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটার ৩০ ডিসেম্বর দিল্লি থেকে মাকে সারপ্রাইজ দিতে নিজের মার্সিডিজ গাড়ি চালিয়ে রুরকি যাচ্ছিলেন। এনএইচ-৫৮ হাইওয়েতে তিনি দুর্ঘটনার কবলে পড়েন। যার ফলে শরীরের একাধিক জায়গায় বাজে ভাবে আঘাত পান ঋষভ।

আরও পড়ুন: IND's predicted XI vs NZ: ইশান নয়, গিলই ওপেন করবেন, বাংলার শাহবাজ থাকবেন একাদশে?

প্রসাদ rediff.com কে বলেছেন, ‘আমি ঋষভ পন্তের জন্য খুব দুঃখিত, মনে হচ্ছে যেন, আমার নিজের ছেলের কিছু হয়েছে। এটা বেদনাদায়ক কারণ আমরা ওর অনূর্ধ্ব-১৯ থেকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে রূপান্তর দেখেছি। আমরা ওকে আমাদের চোখের সামনে বড় হতে দেখেছি। এবং সেই ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনা শুধু ওর এবং ওর পরিবারের জন্যই বেদনাদায়ক নয়, যারা ওকে সমর্থন করে এবং যারা ওর সঙ্গে ছিল, তাদের জন্যও বেদনাদায়ক।’

আরও পড়ুন: ICC ODI Rankings: ক্যারিয়ারের সেরা রেটিং নিয়ে তিনে উঠলেন সিরাজ, বড় লাফ কোহলিরও

ভারতীয় ক্রিকেটারের সঠিক চিকিৎসার জন্য মুম্বইয়ে নিয়ে আসা হয়। তার আগে পন্ত দেরাদুনের ম্যাক্স হাতপাতালে ভর্তি ছিলেন। যেখানে তাঁর তিনটি অস্ত্রোপচার হয়েছিল। ২৫ বছরের তারকাকে দেরাদুন থেকে এয়ারলিফট করে মুম্বইয়ে নিয়ে আসা হয়েছিল। ভয়াবহ দুর্ঘটনার পর সোমবার পন্ত তাঁর প্রথম বিবৃতি দিয়েছেন। তিনি সোমবার ২টি টুইট করেন। প্রথমটায় লিখেছিলেন, ‘সবরকমের সহযোগিতা এবং শুভেচ্ছার জন্য আমি অভিভূত এবং কৃতজ্ঞ। আমি আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, আমার অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে। সেরে ওঠার যাত্রাটা শুরু হয়েছে। ভবিষ্যতের চ্যালেঞ্জের জন্য আমি তৈরি। অফুরন্ত সমর্থনের জন্য ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড, জয় শাহ এবং সরকারকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

দ্বিতীয় টুইটটিতে তিনি লেখেন, ‘অফুরন্ত ভালোবাসা এবং মনোবল বাড়ানোর জন্য হৃদয় থেকে সকল সমর্থক, সতীর্থ, চিকিৎসক এবং ফিজিয়োদের ধন্যবাদ জানাতে চাই। মাঠে সকলের সঙ্গে দেখা করতে মুখিয়ে আছি।’

ইএসপিএন ক্রিকইনফোর প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভারতীয় বোর্ডকে যে মেডিক্যাল রিপোর্ট দেওয়া হয়েছিল, তাতে পন্তের হাঁটুর তিনটি গুরুত্বপূর্ণ লিগামেন্ট ছিঁড়ে গিয়েছিল। ইতিমধ্যে দু'টি ঠিক করা হয়েছে। তৃতীয় লিগামেন্টের জন্য অস্ত্রোপচারের ক্ষেত্রে আরও ছয় সপ্তাহ সময় লাগবে। এই পরিস্থিতিতে ২০২৩ সালে পন্তের পক্ষে পেশাদার ক্রিকেটে ফেরার সম্ভাবনা কার্যত নেই। আইপিএল খেলার তো কোনও সম্ভাবনাই নেই। এমন কী ঘরের মাঠে আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে যে একদিনের বিশ্বকাপ হবে, তাতেও সম্ভবত পন্ত খেলতে পারবেন না।

বন্ধ করুন