বাংলা নিউজ > ময়দান > FIFA World Cup 2022: কাতার বিশ্বকাপে স্টেডিয়ামে বসেই সম্ভবত খেতে পারবেন মদ-বিয়ার!
কাতার বিশ্বকাপে স্টেডিয়ামে বসেই সম্ভবত খেতে পারবেন মদ-বিয়ার! (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
কাতার বিশ্বকাপে স্টেডিয়ামে বসেই সম্ভবত খেতে পারবেন মদ-বিয়ার! (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

FIFA World Cup 2022: কাতার বিশ্বকাপে স্টেডিয়ামে বসেই সম্ভবত খেতে পারবেন মদ-বিয়ার!

  • কাতারে প্রকাশ্যে সুরাপানে রয়েছে কঠোর বিধিনিষেধ।

শুভব্রত মুখার্জি

আগামী বছর কাতারের বুকে বসবে বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর। তার প্রস্তুতিতে আপাতত ব্যস্ত স্থানীয় আয়োজক কমিটি। ফলে চারদিকে সাজসাজ রব। একের পর এক স্টেডিয়ামকে সাজানো হচ্ছে নতুনভাবে। কাতারে দর্শকদের ম্যাচ চলাকালীন মনোরঞ্জন করার লক্ষ্যে এক উদ্যোগ নেওয়া হল। ফিফা বিশ্বকাপে ম্যাচ চলাকালীন স্টেডিয়ামেই সমর্থকদের জন্য সুরাপানের বন্দোবস্ত থাকবে বলে ইঙ্গিত মিলেছে।

সেজন্য অবশ্য দর্শকদের কিনতে হবে হসপিটালিটি প্যাকেজ। প্রিমিয়াম এই অফারের ঠিকাদার সংস্থার তরফে এই তথ্য জানানো হয়েছে। মুসলিম অধ্যুষিত দেশ কাতার। সেখানে প্রকাশ্যে সুরাপানে রয়েছে কঠোর বিধিনিষেধ। তবে এই ঘোষণার মাধ্যমে কাতারের কর্তৃপক্ষ ইঙ্গিত দিয়েছে, মাঠে বিয়ার ও অন্যান্য পানীয় সররবরাহের বিষয়ে তারা নীতিগতভাবে সম্মত। অর্থাৎ বিদেশি বা স্বদেশি দর্শকদের জন্য কোন বাধানিষেধ থাকবে না।সাধারণ সমর্থকরাও সুরাপান করতে পারবেন।

২০১০ সালে বিশ্বকাপের আয়োজক সত্ত্ব পেয়েছিল কাতার। সেই সময় থেকেই আয়োজকদের সামনে ঘুরে ফিরে আসছিল বিশ্বকাপের সময় সুরাপানের বিষয়টি। অবশ্য সাধারণ দর্শকদের জন্য স্টেডিয়ামে সুরাপ্রাপ্তির বিষয়ে কোনও তখ্য জানানো হয়নি। সোমবার টুর্নামেন্টের প্যাকেজ ঘোষণার সময় বিশ্বকাপের হসপিটালিটি প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান চেয়ারম্যান জাইম বায়রম বলেন, 'আগত ফুটবলপ্রেমীরা পানীয় কিনতে পারবে বলে আশা করছি আমরা। যে কোনও বিধিনিষেধ অবশ্য আমরা মেনে চলব।'

বন্ধ করুন