বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ‘ডার্বি গুরুত্বের কথা লাল-হলুদের বিদেশিদের আলাদা করে বোঝানো হয়েছে’: অরিন্দম
 এসসি ইস্টবেঙ্গল।
 এসসি ইস্টবেঙ্গল।

‘ডার্বি গুরুত্বের কথা লাল-হলুদের বিদেশিদের আলাদা করে বোঝানো হয়েছে’: অরিন্দম

  • গত মরশুমে এসসি ইস্টবেঙ্গল দু'টি ডার্বিতেই হেরেছিল। এই বছরেও কিন্তু ধারে, ভারে এগিয়ে এটিকে মোহনবাগান।

আইএসএলের শুরুটা মোটেও ভালো করেনি এসসি ইস্টবেঙ্গল। প্রথম ম্যাচে জামশেদপুর এফসি-র বিরুদ্ধে তারা ড্র করেছে। প্রথমে এগিয়ে গিয়েও জিততে পারেনি লাল-হলুদ ব্রিগেড। এমন কী ভালো খেলেও নজর কাড়তে পারেনি। যে কারণে ডার্বির আগে কিছুটা হলেও চাপে থাকবেন লাল-হলুদ কোচ মানোলো দিয়াজ। তবে দলের অধিনায়ক অরিন্দম ভট্টাচার্য কিন্তু জানিয়ে দিয়েছেন, এই ডার্বি জিততে তারা কতটা মরিয়া। এবং কী ভাবে বিদেশি ফুটবলারদেরও ডার্বির আগে তাতানো হচ্ছে।

নিজের দলের মিডিয়া টিমকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে অরিন্দম বলেছেন, ‘ডার্বি আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং নিঃসন্দেহে বিশেষ একটি খেলা। বেশির ভাগ ভারতীয় খেলোয়াড় এই ডার্বির গুরুত্ব সম্পর্কে জানেন এবং মাঠে এটি কতটা উত্তেজনার হয়, তার ধারণাও আছে। তবে বিদেশি ফুটবলারদের এর সম্পর্কে একটি সংক্ষিপ্ত ধারণা দেওয়া হয়েছে। ওরা এখন জানে এই ম্যাচের গুরুত্ব কতটা। আমরা ভালো ভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছি এবং এখন দল হিসেবে খেলার জন্য অপেক্ষা করছি।’

প্রথম ম্যাচে একেবারেই নজর কাড়তে পারেননি ড্যানিয়েল চিমা। অথচ তাঁকে ঘিরে প্রত্যাশা অনেক বেশি। এই ডার্বি থেকেই তিনি ঘুরে দাঁড়াতে চান। চিমা বলেওছেন, ‘আমার মনে প্রথম যে জিনিসটি আসছে, সেটা হল যুদ্ধ। এই যুদ্ধে জিততে আমি আমার সবটা দিতে প্রস্তুত। আমার সমস্ত শক্তি দিয়ে এই গেমটি খেলব, কারণ আমি এখন জানি, এটি সবচেয়ে বড় খেলা।’

মহম্মদ রফিক, যিনি আবার বহু ডার্বির সাক্ষী, তিনি বলেছেন, ‘এসসি ইস্টবেঙ্গল এবং এটিকে মোহনবাগান নামগুলোর সঙ্গে আমাদের মনের আবেগ জড়িয়ে রয়েছে। কারণ কলকাতা ডার্বি ভারতের সবচেয়ে বড় ডার্বি। আমি বিশ্বের সমস্ত ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের দলকে সমর্থন করতে অনুরোধ করছি।’

গত মরশুমে লাল-হলুদ বাহিনী দু'টি ডার্বিতেই হেরেছিল। এখন দেখার, ২৭ নভেম্বরের ডার্বিতে তারা ঘুরে দাঁড়াতে পারে কিনা!

বন্ধ করুন