বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > অগ্নিগর্ভ লাল-হলুদ তাঁবু, ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের সামনেই মারপিট দুই গোষ্ঠীর
ইস্টবেঙ্গল গেটের সামনে তখন অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি (ছবি:ফেসবুক)

অগ্নিগর্ভ লাল-হলুদ তাঁবু, ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের সামনেই মারপিট দুই গোষ্ঠীর

  • বুধবার ময়দানের লেসলি ক্লডিয়াস সরণী অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠল। ইস্টবেঙ্গেলের দুই গোষ্ঠির মধ্যে দেখা গেল উত্তেজনা। প্রথমে বাক্য বিনিময় পরে হাতাহাতি এবং পরে মারপিটে জড়িয়ে যান দুই পক্ষের সমর্থকেরা।

বুধবার ময়দানের লেসলি ক্লডিয়াস সরণী অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠল। ইস্টবেঙ্গেলের দুই গোষ্ঠির মধ্যে দেখা গেল উত্তেজনা। প্রথমে বাক্য বিনিময় পরে হাতাহাতি এবং পরে মারপিটে জড়িয়ে যান দুই পক্ষের সমর্থকেরা।

ইস্টবেঙ্গল গেটের সামনে তখন অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি (ছবি:ফেসবুক)
ইস্টবেঙ্গল গেটের সামনে তখন অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি (ছবি:ফেসবুক)

ক্লাবকর্তাদের সমর্থনকারী গোষ্ঠীর সঙ্গে ক্লাবকর্তাদের বিরোধী গোষ্ঠী হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি সাময়িক ভাবে সামাল দিলেও এখন পরিস্থিত উত্তপ্ত রয়েছে। এই প্রথম লেসলি ক্লডিয়াস সরণী দেখল লাল-হলুদ সমর্থকদের দুই গোষ্ঠীর লড়াই।

 

আগেই সোশ্যাল মিডিয়াতে ঝড় উঠেছিল। ২১ জুলাই যে বড় কিছু একটা হতে চলেছে, তার আভাস আগে থেকেই পাওয়া গিয়েছিল। সেই মতো ক্লাবকর্তাদের বিরোধী সমর্থকরা দুপুর ১টার আগে থেকেই ক্লাবের সামনে জড়ো হতে শুরু করেছিল। পাল্টা জড়ো হচ্ছিলেন ক্লাবকর্তাদের ঘনিষ্ঠ সমর্থকেরাও। দু’পক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে শ্লোগান দিচ্ছিলেন। একটা সময় পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশকে মাঠে নামতে হয়। ঠিক সেই সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। দু’পক্ষের বাদানুবাদ ক্রমশ ছড়িয়ে পড়ে হাতাহাতিতে। তারপর অগ্নিগর্ভব হয়ে ওঠে ময়দান। লাল হলুদে তখন চলছে হাতাহাতি। সেই সময় সাংবাদিকদের ওপরেও ক্লাব প্রশাসনের কর্তারা চড়াও হন। সাংবাদিকদের আহতও করা হয়েছে।

গন্ডগোল যে হবে তা আগে থেকেই আঁচ করা গিয়েছিল। এমন অনুমান করে আগে থেকেই মোতায়েন করা হয়েছিল বিশাল পুলিশ-বাহিনী। তাঁদের হস্তক্ষেপে ঝামেলা বেশি দূর গড়ায়নি। কিন্তু শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত পরিস্থিতি এখনও স্বাভাবিক হয়নি। তবে বড় ধরনের কোনও ঘটনা এখনও ঘটেনি। গোটা ঘটনাই কলকাতা পুলিশের তরফ থেকে ভিডিয়ো করে রাখা হচ্ছে।

বন্ধ করুন