বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > গোয়া শিবিরে করোনা হানা, ATK MB ম্যাচ অনিশ্চিত, SC EB-র ফুটবলারও কোভিড পজিটিভ
এটিকে মোহনবাগান টিম।

গোয়া শিবিরে করোনা হানা, ATK MB ম্যাচ অনিশ্চিত, SC EB-র ফুটবলারও কোভিড পজিটিভ

  • ম্যাচের আগের দিন অর্থাৎ সোমবার এফসি গোয়া অনুশীলন বা প্রথাগত সাংবাদিক বৈঠক—কিছুই করেনি। সূত্রের খবর ৩জন ফুটবলারের রিপোর্ট ‘পজ়িটিভ’ এসেছে। আরও চার ফুটবলারের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যে সমস্ত ফুটবলাররা করোনা পজিটিভ হয়েছেন, তাদের আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। তাদের চিকিৎসাও চলছে।

আরও এক বার করোনা হানা দিয়েছে আইএসএলে। যার  জেরে অনিশ্চিত হয়ে পড়ল এটিকে মোহনবাগান বনাম এফসি গোয়া ম্যাচ। জানা গিয়েছে, এফসি গোয়ার একাধিক ফুটবলার করোনায় আক্রান্ত। যদিও এখনও পর্যন্ত আইএসএলের তরফে কিছু জানানো হয়নি।

ম্যাচের আগের দিন অর্থাৎ সোমবার এফসি গোয়া অনুশীলন বা প্রথাগত সাংবাদিক বৈঠক—কিছুই করেনি। সূত্রের খবর ৩জন ফুটবলারের রিপোর্ট ‘পজ়িটিভ’ এসেছে। আরও চার ফুটবলারের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যে সমস্ত ফুটবলাররা করোনা পজিটিভ হয়েছেন, তাদের আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। তাদের চিকিৎসাও চলছে।

আইএসএলের যা নিয়ম, তাতে গোলকিপার-সহ ১৫ জন ফুটবলার সুস্থ থাকলেই ম্যাচ হতে পারে। কিন্তু আক্রান্তের সংখ্যা যদি আরও বাড়ে, তবে পরিস্থিতি জটিল হতে পারে। সে ক্ষেত্রে ম্যাচ বাতিল হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। 

এটিকে-মোহনবাগান শিবিরে কেউ যদিও এ বার আক্রান্ত হননি। তাই সবুজ-মেরুন কোচ জুয়ান ফেরান্দো কিছুটা স্বস্তিতে। তবে প্রশ্ন উঠেছে কঠোর বায়ো বাবলে থাকার পরেও কেন বারবার করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন আইএসএলের ফুটবলাররা। এর আগেও করোনার জন্য ম্যাচ আইএসএলের ম্যাচ বাতিল হয়ে গিয়েছে।

লাল-হলুদ শিবিরেও করোনা হানা দিয়েছে। দলের গোলকিপার অরিন্দম ভট্টাচার্য এবং ড্যারেন সিদোয়েলও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ কথা সোমবারের ম্যাচের পরই জানিয়েছিলেন কোচ মারিয়ো রিভেরা। তিনি বলেছিলেন, ‘অরিন্দম ও ড্যারেন গতকাল রাত থেকে অসুস্থ। ওদের দুজনকে রেখেই ম্যাচের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ওদের আপাতত আইসোলেশনে রাখতে হয়েছে। ওদের থেকে যাতে অন্যান্য খেলোয়াড়দের মধ্যে ভাইরাস না ছড়ায়, সে জন্যই এই ব্যবস্থা নিতে হয়েছে।’

বন্ধ করুন