বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > বড় ধাক্কা SC EB শিবিরে, কঠিব শাস্তির কবলে পড়তে চলেছেন পেরোসেভিচ
আন্তোনিয়ো পেরোসেভিচ।
আন্তোনিয়ো পেরোসেভিচ।

বড় ধাক্কা SC EB শিবিরে, কঠিব শাস্তির কবলে পড়তে চলেছেন পেরোসেভিচ

  • ফেডারেশনের শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির তরফে পেরোসেভিচকে ৫ ম্যাচের সাসপেনশন ও ১ লক্ষ টাকার জরিমানার শাস্তি প্রদান করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ফেডারেশনের শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি নাকি পেরোসেভিচের শো-কজের জবাবে সন্তুষ্ট নয়। যার নিটফল, কড়া শাস্তি হিসেবে পাঁচ ম্যাচের নির্বাসন দেওয়া হয়েছে লাল-হলুদের তারকা ফুটবলারকে।

একেই ছন্দে নেই টিম। ল্যাজেগোবরে অবস্থা। তার উপর গোদের উপর বিষফোঁড়া। বড় শাস্তির কবলে পড়তে চলেছেন আন্তোনিও পেরোসেভিচ। পাঁচ ম্যাচ নির্বাসিত হতে চলেছেন ক্রোয়েশিয়ার এই ফুটবলার। সঙ্গে দিতে হবে এক লক্ষ টাকা জরিমানাও। 

গত ১৭ ডিসেম্বর নর্থ-ইস্ট ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে ম্যাচে রেফারি রাহুল কুমার গুপ্তকে ধাক্কা দিয়েছিলেন পেরোসেভিচ। যে কারণে সেই ম্যাচে তাঁকে লালকার্ডও দেখতে হয়। আসল রেফারির একটি সিদ্ধান্ত নিয়েই ঘটনার সূত্রপাত হয়েছিল। নর্থ ইস্টের খাসা কামারা মাঠিতে পড়ে যেতেই ফাউল দেন রাহুল কুমার গুপ্ত। আর তাতেই মেজাজ হারিয়ে তেড়ে গিয়ে রেফারিকে ধাক্কা দেন পেরোসেভিচ। সেই সময়ে তিনি লালকার্ড দেখেছিলেন। পরে ফেডারেশনের তরফে তাঁক শো-কজ করা হয়েছিল। এআইএফএফ সূত্রের খবর, বড় শাস্তির কবলে পড়তে চলেছেন এসসি ইস্টবেঙ্গলের ক্রোয়েশিয়ার ফুটবলার।

ঊষানাথ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনের শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির তরফে পেরোসেভিচকে পাঁচ ম্যাচের সাসপেনশন ও এক লক্ষ টাকার জরিমানার শাস্তি প্রদান করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। যদিও সরকারি ভাবে এখনও সংবাদমাধ্যমকে জানানো হয়নি। ফেডারেশনের শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি নাকি পেরোসেভিচের শো-কজের জবাবে সন্তুষ্ট নয়। যার নিটফল, কড়া শাস্তি হিসেবে পাঁচ ম্যাচের নির্বাসন দেওয়া হল লাল-হলুদের তারকা ফুটবলারকে। 

নর্থ ইস্টের বিরুদ্ধে ম্যাচের পরে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে চিঠিও দিয়েছিলেন পেরোসেভিচ। তাতে অবশ্য শেষ রক্ষা হয়নি। কারণ, লাল-হলুদ স্ট্রাইকারের বিরুদ্ধে কড়া রিপোর্ট দিয়েছিলেন রেফারি এবং ম্যাচ কমিশনার। ফেডারেশনের খবর, সেই রিপোর্টে নাকি রেফারি উল্লেখ করেছেন, তাঁর দিকে রেগেমেগে তেড়ে গিয়ে তাঁকে শারীরিক ভাবে আঘাত করেছেন পেরোসেভিচ। এমন কী ঘটনার ভিডিও ফুটেজও দেখেছে শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি। পাশাপাশি পেরোসেভিচের বক্তব্য শোনার পরেই এই সিদ্ধান্ত কমিটি নিয়েছে।

যা পরিস্থিতি তাতে ইতিমধ্যেই একটি ম্যাচ খেলেননি পেরোসেভিচ। এ বার আবার বেঙ্গালুরু এফসি (৪ জানুয়ারি), মুম্বই সিটি এফসি (৭ জানুয়ারি), জামশেদপুর এফসি (১১ জানুয়ারি) এবং এফসি গোয়া (১৯ জানুয়ারি)- এই চার ম্যাচে তাঁকে নাও পাওয়া যেতে পারে। স্বাভাবিক ভাবেই পেরোসেভিচের মতো ফুটবলারের টিমে না থাকাটা বড় ধাক্কা লাল-হলুদের কাছে। কারণ পাকের মধ্যে পদ্মফুল হয়ে ফুটেছিলেন একমাত্র পেরোসেভিচই।

বন্ধ করুন