বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > SC ইস্টবেঙ্গলের গভীরতা মেপে নিজের রণকৌশল তৈরি করছেন ATK মোহনবাগান কোচ হাবাস
এটিকে মোহনবাগান কোচ আন্তোনিও লোপেজ হাবাস (ছবি:টুইটার)

SC ইস্টবেঙ্গলের গভীরতা মেপে নিজের রণকৌশল তৈরি করছেন ATK মোহনবাগান কোচ হাবাস

  • এসসি ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে কেরালা ব্লাস্টার্স ম্যাচের জয়ী দল নামাবেন না এটিকে মোহনবাগান কোচ আন্তোনিও লোপেজ হাবাস। লাল হলুদের জন্য অন্য রকম পরিকল্পনা করেছেন তিনি।

এসসি ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে কেরালা ব্লাস্টার্স ম্যাচের জয়ী দল নামাবেন না এটিকে মোহনবাগান কোচ আন্তোনিও লোপেজ হাবাস।  লাল হলুদের জন্য অন্য রকম পরিকল্পনা করেছেন তিনি। ম্যাচের আগের দিন হাবাস জানান, ‘প্রতিটি ম্যাচের জন্য আমাদের আলাদা পরিকল্পনা রয়েছে। আমরা সব ম্যাচ একই কৌশলে একই ফুটবলারকে রেখে খেলি না। প্রত্যেক ফুটবলারকে আলাদা করে পরীক্ষা করি, বিপক্ষ কেমন খেলে সেটা দেখি এবং সেই অনুযায়ী দল নির্বাচন করি।’ অর্থাৎ এই কথাতেই পরিস্কার যে অরিন্দমদের জন্য একেবারেই অন্য রকম কিছু ভাবছেন হাবাস। 

কেরালার বিরুদ্ধে চার গোল দিলেও দু’গোল হজম করতে হয়েছে এটিকে মোহনবাগানকে। এই ব্যাপারটা একটু ভাবাচ্ছে হাবাসকে। তাই তিনি চান, ৯০ মিনিট একই গতিতে খেলুক দল। পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন, আলাদা করে কোনও ফুটবলার নিয়ে পরিকল্পনা করতে চান না তিনি। হাবাস বলেছেন, ‘আমার কাছে বৌমাস, কৃষ্ণ, লিস্টনরাও যা, প্রীতম, ম্যাকহিউ, তিরিরাও একই। আলাদা করে ৩-৪ জনের নাম করতে চাই না।’  

গত মরসুমে দু’টি সাক্ষাতেই লাল-হলুদকে হারিয়েছিল এটিকে মোহনবাগান। তবে অতীত নিয়ে একেবারেই ভাবতে চান না হাবাস। চলতি মরশুমে নিজেদের প্রথম ম্যাচে কেরালা ব্লাস্টার্সকে অনায়াসে ৪-২ ব্যবধানে হারিয়েছে হাবাসের ছেলেরা। কিন্তু এসসি ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে কলকাতা ডার্বিতে মুখোমুখি হওয়ার আগে এসব ভুলে যেতে চান সবুজ-মেরুনের কোচ আন্তোনিও লোপেজ হাবাস। অতীতের কথা তিনি মাথায় রাখতে চান না। তাঁর মতে, এটা অন্য লড়াই। ফলে কৌশলও বদলে যাবে। হাবাস বলেন, ‘অতীতে কী হয়েছে মনে রাখতে চাই না। প্রতিপক্ষকে ১০০ শতাংশ শ্রদ্ধা করেই আমরা জেতার জন্য মাঠে নামব। ওরা গত বারের থেকে অনেক বদলে গিয়েছে। নতুন কোচ এবং একগাদা নতুন ফুটবলার এসেছে দলে। ম্যানেজমেন্ট যা চাইছে, তা পূরণ করতে এক-দু’বছর সময় লাগে কোচের। কিন্তু ভারতে তৎক্ষণাৎ সাফল্য চাওয়া হয়। ক্লাবের দীর্ঘমেয়াদী উপকারিতার থেকে তাৎক্ষণিক ফলাফলকে এখানে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়। এটা ভালো নয়।’

বন্ধ করুন