বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ইস্টবেঙ্গলের জন্য সম্ভবত পিছোচ্ছে ডার্বি, এ দিকে প্রস্তুতিতে নেমে পড়ল ATK MB
অনুশীলনে নেমে পড়লেন জুয়ান ফেরান্দো।

ইস্টবেঙ্গলের জন্য সম্ভবত পিছোচ্ছে ডার্বি, এ দিকে প্রস্তুতিতে নেমে পড়ল ATK MB

  • ১৬ অগস্টের ডার্বি সম্ভবত পিছোতে চলেছে। মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল ম্যাচ দিয়ে ডুরান্ড শুরু হওয়ার কথা ছিল। তবে লাল-হলুদের এখনও চুক্তিই সই হয়নি। তার পর তো ফুটবলারদের সই বাকি। অনুশীলন শুরু তো দূরের কথা। যে কারণে ইমামির তরফে ডার্বি পিছানোর আবেদন করা হয়েছে।

আজ ২৯ জুলাই, মোহনবাগান দিবস। তার আগে আলোয় ভাসছে ক্লাব। করোনা আবহ কাটিয়ে প্রচুর মানুষের ভিড় সকাল থেকেই ভিড় জমাতে শুরু করেছেন। এ বার ‘মোহনবাগান রত্ন’ হচ্ছেন শ্যাম থাপা। সারা জীবনের স্বীকৃতি পাবেন প্রাক্তন ফুটবলার বলাই দে। সেরা স্ট্রাইকার কিয়ান নাসিরি। সেরা ফুটবলার লিস্টন কোলাসো। সেরা ক্রিকেটার হয়েছেন প্রিনান দত্ত। সঙ্গে থাকছে সঙ্গীতানুষ্ঠানও। তবে এ সব নিয়ে বিন্দুমাত্রও মাথাব্যথা নেই এটিকে মোহনবাগান কোচ জুয়ান ফেরান্দোর। তিনি ঐতিহাসিক মোহনবাগান দিবসেই প্রাক মরশুম প্রস্তুতি শুরু করে দিলেন।

শুক্রবার সাত সকালে দলবল নিয়ে মোহনবাগান মাঠে হাজির হয়ে গিয়েছিলেন স্প্যানিশ কোচ। কলকাতায় উপস্থিত ফুটবলারদের নিয়ে মরশুমের প্রথম প্র্যাকটিসে নেমে পড়লেন ফেরান্দো। বিদেশি ফুটবলারদের মধ্যে একমাত্র হুগো বৌমাস কলকাতায় এসে পড়েছেন। এ ছাড়াও এ দিন অনুশীলনে ছিলেন লিস্টন কোলাসো, প্রীতম কোটাল, শুভাশিস বসু, কিয়ান নাসিরি এবং প্রণয় হালদার। সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ দল নিয়ে মাঠে নেমে পড়েন ফেরান্দো। কিছুক্ষণ গা ঘামানোর পর চলে জিম সেশন। সবুজ মেরুনের কোচ এবং ফুটবলারদের স্বাগত জানাতে পতাকা, ফেস্টুন নিয়ে হাজির হয়েছিলেন মোহনবাগান ফ্যান ক্লাবের সদস্যরা।

আরও পড়ুন: শহরে এসেই বৌমাসকে নিয়ে ফেরান্দো ছুটলেন মোহবাগান টেন্টে, ঘুরে দেখলেন মাঠের হাল

দুই বছর পর আবার ক্লাবের মাঠে প্র্যাকটিস করল মোহনবাগান দল। ২০১৯ সালের শুরুর দিকে শেষবার ক্লাবের মাঠে প্র্যাকটিস করেছিল সবুজ-মেরুন ব্রিগেড। তার পর কোভিডের জেরে সেই সুযোগ আর হয়নি। গত দু'বছর আইএসএল হয় গোয়ায়। কলকাতায় অনুশীলন করলেও সাধারণত যুবভারতীর প্র্যাকটিস গ্রাউন্ডেই করত এটিকে মোহনবাগান। কিন্তু এই বছর ফের ক্লাবের মাঠে পরিচিত ছবির দেখা মিলল।

আরও পড়ুন: আগে থেকেই ঠিক ছিল, ইস্টবেঙ্গলের কোচ হিসেবে কনস্ট্যানটাইনের নামে শিলমোহর ইমামির

এরই মধ্যে আবার জানা গিয়েছে, ১৬ অগস্টের ডার্বি সম্ভবত পিছোতে চলেছে। মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল ম্যাচ দিয়ে ডুরান্ড শুরু হওয়ার কথা ছিল। তবে লাল-হলুদের এখনও চুক্তিই সই হয়নি। তার পর তো ফুটবলারদের সই বাকি। অনুশীলন শুরু তো দূরের কথা। যে কারণে ইমামির তরফে ডার্বি পিছানোর আবেদন করা হয়েছে। যা নিয়ে মোহনবাগান সচিব দেবাশিস দত্ত কটাক্ষ করে বলেছেন, ‘ওরা আসলে আমাদের সঙ্গে খেলতে ভয় পাচ্ছে।’ ইস্টবেঙ্গল শীর্ষ কর্তা দেবব্রত সরকার পাল্টা বলেছেন, ‘আমরা এর উত্তর ঠিক সময়ে দেব।’ যাইহোক আপাতত জানা গিয়েছে, ডার্বির দিন সম্ভবত ২৮ অগস্ট পিছিয়ে যাচ্ছে।

বন্ধ করুন