বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ATKMB vs OFC: ওড়িশার বিরুদ্ধে গোলশূন্য ড্র করেই সন্তুষ্ট থাকতে হল সবুজ মেরুনকে
ম্যাচ শেষে দুই দলের শুভেচ্ছা বিনিময়। ছবি- টুইটার (@IndSuperLeague)।
ম্যাচ শেষে দুই দলের শুভেচ্ছা বিনিময়। ছবি- টুইটার (@IndSuperLeague)।

ATKMB vs OFC: ওড়িশার বিরুদ্ধে গোলশূন্য ড্র করেই সন্তুষ্ট থাকতে হল সবুজ মেরুনকে

  • ড্র করে লিগ তালিকায় সাত নম্বরে রইল এটিকে মোহনবাগান।

শিবিরে একগুচ্ছ তারকা করোনা আক্রান্ত হওয়ায় ১৭ দিন পরে ওড়িশা এফসির বিরুদ্ধে ম্যাচ খেলতে নেমেছিল এটিকে মোহনবাগান। তবে নিজেদের খেলায় মন জিতলেও ম্যাচ জিততে ব্যর্থ হন জুয়ান ফেরান্দোর দল। গোয়ার ফাতোরদা স্টেডিয়ামে কড়া টক্কর শেষে গোলশূন্য শেষ হল এটিকে মোহনবাগান এবং ওড়িশা এফসির ম্যাচ।

ম্যাচের প্রথম থেকে শেষ অবধি প্রচুর গোলের সুযোগ পায় দুই দলই। ম্যাচের মাত্র চার মিনিটের মাথাতেই ওড়িশার হয়ে হেক্টর রামিরেজ প্রথম বড় সুযোগ পান। তবে তিনি গোলে বল জড়িয়ে দিতে ব্যর্থ হন। ১৫ মিনিটে লিস্টন কোলাসোর বাড়ানো থ্রু বল থেকে প্রথম সুযোগ আসে এটিকে মোহনবাগানের কাছে। থ্রু বল পায়ে পেয়ে মনবীর সিংয়ের অ্যাসিস্ট থেকে মোহনবাগান কার্যত লিড এনেই দিয়েছিলেন ডেভিড উইলিয়ামস। তবে ওড়িশার ভিক্টর মঙ্গিল বাধা হয়ে দাঁড়ান। কোলাসোর ফ্রি-কিক থেকে সবুজ মেরুন আরও একটি ভাল সুযোগ পেলেও তাঁর শট ওড়িশা গোলরক্ষক অর্শদীপ বাঁচিয়ে দেন।

প্রথমার্ধে দাপট দেখানোর পর, দ্বিতীয়ার্ধেও ম্যাচের রাশ মোহনবাগানের হাতেই থাকে। শুরুর দিকে উইলিয়ামসের হেডার বাঁচান অর্শদীপ। মোহনবাগানের রক্ষণের ভুলে ওড়িশাকে ম্যাচে এগিয়ে দেওয়ার দারুণ এক সুযোগ পেয়ে গিয়েছিলেন জেরি। তবে তিনি সোজা গোলকিপারের হাতে বল জমা দেন। ৮৩ মিনিটে অফসাইডের জন্য হাভিয়ের হার্নান্ডেজের গোল বাতিল হয়। ম্যাচের একেবারে শেষের দিকে এক সুবর্ণ সুযোগ পেয়ে গিয়েছিলেন প্রবীর দাস। তবে কার্ল ম্যাকহিউয়ের সুন্দর পাস থেকে তিনি বল গোলেই রাখতে পারেননি।

শেষমেশ একগাদা সুযোগ হাতছাড়া করার খেসারত দিতে হয় দুই দলকে। ম্যাচ গোলশূন্যই শেষ হয়। এই ড্রয়ের সুবাদে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে ওড়িশা লিগ তালিকায় ছয় নম্বরে রইল। ওড়িশার থেকে এক পয়েন্ট কম নিয়ে সাতে রয়েছে ফেরান্দোর দল। ২৯ তারিখ ডার্বির আগে দলের খেলা মোহনবাগান সমর্থকদের মুখে হাসি ফোটালেও, সুযোগ কাজে লাগানোর ব্যর্থতা কিন্তু বেশ চিন্তায় ফেলবে দলের ফুটবলার থেকে কোচ সকলকেই।

বন্ধ করুন