বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > বাংলাদেশ ফুটবলের সোনালি দিন, ১৮ বছর পর মলদ্বীপকে হারালেন জামালরা
মলদ্বীপকে হারাল বাংলাদেশ। 
মলদ্বীপকে হারাল বাংলাদেশ। 

বাংলাদেশ ফুটবলের সোনালি দিন, ১৮ বছর পর মলদ্বীপকে হারালেন জামালরা

  • ২০০৩ সালের পর থেকে মলদ্বীপের বিপক্ষে জয়ের মুখ ফুটবল মাঠে দেখতে পাননি বাংলাদেশ। তার পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ দলের ১৮ বছরের সঙ্গী ছিল চার ম্যাচ হারের যন্ত্রণা। অবশেষে সেই যন্ত্রণা থেকে বেরোতে পারল তারা।

শুভব্রত মুখার্জি: সদ্য শেষ হওয়া সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে একেবারে তীরে এসে তরী ডুবেছিল বাংলাদেশ ফুটবল দলের। শেষ মুহূর্তে গোল হজম করে তাদের ফাইনালে সে দিন আর যাওয়া সম্ভব হয়নি। তবে সেই হতাশা কাটিয়ে শনিবার নিজেদের ফুটবল ইতিহাসে এক সোনালি ইতিহাস লিখলেন জামালরা। ১৮ বছর পরে মলদ্বীপকে হারালেন তারা।

উল্লেখ্য ২০০৩ সালের পর থেকে মলদ্বীপের বিপক্ষে জয়ের মুখ ফুটবল মাঠে দেখতে পাননি বাংলাদেশ। তার পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ দলের ১৮ বছরের সঙ্গী ছিল চার ম্যাচ হারের যন্ত্রণা। অবশেষে সেই যন্ত্রণা থেকে বেরোতে পারল তারা। ম্যাচের শুরুতে বাংলাদেশ এগিয়ে গেলেও মলদ্বীপ গোল শোধ করার ফলে ম্যাচ টানটান উত্তেজনার হয়ে যায়। ম্যাচের শেষ লগ্নে বাজিমাত করেন ডিফেন্ডার তপু বর্মন। তাঁর গোলেই প্রায় দুই দশকের খরা কাটল বাংলাদেশের।

শ্রীলঙ্কাতে শনিবার মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। দেশের প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে আন্তর্জাতিক ট্রফিতে শনিবার মলদ্বীপকে ২-১ গোলে হারায় বাংলাদেশ। এ দিন বাংলাদেশ ফুটবলের কিংবদন্তি জামাল ভূঁইয়া দলকে এগিয়ে দেন। মলদ্বীপের হয়ে পর সমতা ফেরান মহমেদ উমাইর। ম্যাচে টানটান উত্তেজনার সঞ্চার হয়। যখন সবাই ধরে নিয়েছিল ম্যাচ ড্র হতে চলেছে সেই সময়তেই নির্ধারিত সময়ের তিন মিনিট বাকি থাকতে স্পট কিক পায় বাংলাদেশ। সেখান থেকে জয়সূচক গোল করতে ভুল করেননি তপু।

উল্লেখ্য ২০০৩ সালে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে শেষ বার মলদ্বীপের বিপক্ষে জয়ের স্বাদ পেয়েছিল বাংলাদেশ। সাফের সেই ফাইনালে টাইব্রেকারে জিতেছিল তারা। গত অক্টোবরে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে মলদ্বীপের বিপক্ষে ২-০ গোলে হারে বাংলাদেশ।

বন্ধ করুন