বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > শ্রী সিমেন্টের উপর ‘বিরক্ত’, ইস্টবেঙ্গলের 'বিপদে' ‘চেষ্টা’ করার বার্তা মমতার

শ্রী সিমেন্টের উপর ‘বিরক্ত’, ইস্টবেঙ্গলের 'বিপদে' ‘চেষ্টা’ করার বার্তা মমতার

গতবার ইস্টবেঙ্গল কর্তার সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

ক্ষোভের সুরে মমতা বলেন, 'এতদিন ঝুলিয়ে' রেখেছিল কেন?

টানাপোড়েনের পর কি বিচ্ছেদ হতে চলেছে ইস্টবেঙ্গল ও বিনিয়োগকারী সংস্থা শ্রী সিমেন্টের? সরকারিভাবে কিছু জানানো না হলেও কার্যত সেই জল্পনায় সিলমোহর পড়ে গিয়েছে। তারইমধ্যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানালেন, হরিমোহন বাঙ্গুরের সংস্থার ভূমিকায় অত্যন্ত বিরক্ত হয়েছেন। সেই পরিস্থিতিতে ইস্টবেঙ্গলের জন্য কিছু করার 'চেষ্টা' করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

সোমবার নবান্নে ইস্টবেঙ্গল সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি সিদ্ধান্ত নেওয়ার কে? আপনারা আমায় কেন জিজ্ঞাসা করছেন? আমি কি ইস্টবেঙ্গল ক্লাব চালাই? ওদের ক্লাব কর্তৃপক্ষ আছে। ওদের সঙ্গে কথা বলুন।’ 

রিপোর্ট অনুযায়ী, বিনা শর্তে ইস্টবেঙ্গলকে স্পোর্টিং রাইটস ফিরিয়ে দিচ্ছে হরিমোহন বাঙ্গুরের সংস্থা। শ্রী সিমেন্টের তরফে ইস্টবেঙ্গলকে ই-মেল করে একথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে শোনা যাচ্ছে। তা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'যারা (শ্রী সিমেন্ট) ছিল, তারা আমায় চিঠি দিয়ে জানাচ্ছে, তারা করতে পারবে না। একেবারে শেষ মুহূর্তে। এটা খুব খারাপ মনোভাব। একটা ক্লাবকে এতদিন ধরে ঝুলিয়ে শেষ মুহূর্তে বলছে, কিছু করতে পারব না। এর জন্য আমরা প্রত্যেক দুঃখিত। আমরা প্রত্যেকে বিরক্ত। তাহলে আপনারা ছ'মাস-এক বছর ধরে কথা চালালেন কেন? এমনকী আমার সঙ্গেও দেখা করে বলে গিয়েছিল, ১৬ তারিখে খুলে দেবে। তারপর এমন কী ঘটল, পিছনে কী রহস্য, যে রহস্যের জন্য ওরা বলে দিচ্ছে যে আমরা ছেড়ে চলে যাচ্ছি।'

মুখ্যমন্ত্রী জানান, পরিস্থিতি জটিল হলেও ইস্টবেঙ্গলের পাশে আছে রাজ্য সরকার। তিনি বলেন, ‘ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের একটা ঐতিহ্য আছে।’ সঙ্গে মমতা যোগ করেন, ‘আমরা যে বিরক্ত সেটাও জানাব। ওদের বিপদে সকলের এগিয়ে আসা উচিত।’

বন্ধ করুন