বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > সকালে বাবার মৃত্যু, বিকেলে মাঠে নেমে মাথা ফাটল পিয়ারেলেসের আকাশের, পড়ল সেলাই
পিয়ারলেসের আকাশ মুখোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্য আইএফএ)
পিয়ারলেসের আকাশ মুখোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্য আইএফএ)

সকালে বাবার মৃত্যু, বিকেলে মাঠে নেমে মাথা ফাটল পিয়ারেলেসের আকাশের, পড়ল সেলাই

  • আনসুমানা ক্রোমাকে তাঁকে ম্যাচের সেরা বেছে নেওয়া হয়েছে। তবে ফুটবল অনুরাগীদের চোখে সত্যিকারের ম্যাচের সেরা হয়ে উঠেছেন আকাশ।

সোমবার সকালেই মৃত্যু হয়েছে বাবার। তাঁর স্বপ্নপূরণের জন্য কয়েক ঘণ্টা পরেই টালিগঞ্জ অগ্রগামীর বিরুদ্ধে নেমে পড়েছিলেন মাঠে। তারইমধ্যে মাথা ফেটে যায় পিয়ারলেসের আকাশ মুখোপাধ্যায়ের। সূত্রের খবর, মাথায় ছ'টি সেলাই পড়েছে তাঁর।

কলকাতা লিগে সোমবার বিকেলে টালিগঞ্জ অগ্রগামীর বিরুদ্ধে পিয়ারলেসের ম্যাচ ছিল। সেই ম্যাচের কয়েক ঘণ্টা আসে সকালের দিকে আসে দুঃসংবাদ। পিতৃবিয়োগ হয় আকাশের। বাবাকে হারানোর ধাক্কাটুকু সামলে ওঠার জন্য যে সময়টা দরকার ছিল, তার আগেই ছিল ম্যাচ। সেই ম্যাচ খেলার জন্য একেবারে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ছিলেন আকাশ। কোচ এবং ক্লাবকর্তারা খেলতে বারণ করলেও বদ্ধপরিকর ছিলেন। সিদ্ধান্তটা কঠিন ছিল। কিন্তু সদ্য প্রয়াত বাবার স্বপ্নপূরণের জন্য সেই কঠিন সিদ্ধান্তে একেবারে অবিচল ছিলেন আকাশ। সেইমতো মাঠে নেমে পড়েন। কিন্তু ম্যাচ চলাকালীন মাথা ফেটে যায় তাঁর। সূত্রের খবর, তাঁর মাথায় ছ'টি সেলাই পড়েছে।

আকাশ মুখোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্য আইএফএ)
আকাশ মুখোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্য আইএফএ)

আকাশের সেই মানসিক জোরে মুগ্ধ হয়েছেন ক্লাবকর্তারা। এক ক্লাবকর্তা জানান, সোমবার সকালে বাবার মৃত্যুর খবর পাওয়ার পর সকলে ভেবেছিলেন যে আকাশ খেলবেন না। তাঁকে খেলতে বারণও করা হয়েছিল। তবে আকাশ একেবারে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ছিলেন। তাই ক্লাবের তরফে তাঁর সিদ্ধান্তকে সম্মান জানানো হয়। আকাশের বাবাও চাইতেন যে ছেলে বড় ফুটবল হয়ে উঠুক। সোমবারের জয়টা আকাশের প্রয়াত বাবাকে উৎসর্গ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এমনিতে সোমবার কাদা ভরতি মাঠে ৬-২ গোলে জিতে যায় পিয়ারলেস। হ্যাটট্রিক করেন আনসুমানা ক্রোমা। তাঁকে ম্যাচের সেরা বেছে নেওয়া হয়েছে। তবে ফুটবল অনুরাগীদের চোখে সত্যিকারের ম্যাচের সেরা হয়ে উঠেছেন আকাশ।

বন্ধ করুন