বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > Champions League: অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে হারিয়ে দুই ম্যাচ বাকি থাকতেই পরের পর্বে কোয়ালিফাই করল লিভারপুল
জোটার গোলের পরে লিভারপুল খেলোয়াড়দের সেলিব্রেশন। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)
জোটার গোলের পরে লিভারপুল খেলোয়াড়দের সেলিব্রেশন। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)

Champions League: অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে হারিয়ে দুই ম্যাচ বাকি থাকতেই পরের পর্বে কোয়ালিফাই করল লিভারপুল

  • ম্যাচের ৩৬ মিনিটে ফিলিপে লাল কার্ড দেখায় ফের ১০ জনেই অধিকাংশ ম্যাচ খেলতে হয় অ্যাটলেটিকোকে।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ ডে ৪-এ গ্রুপ ‘বি’-র মোকাবিলায় ফের একবার মুখোমুখি হয়েছিল লিভারপুল এবং অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। দুই সপ্তাহে আগে মাদ্রিদে একই ম্যাচে অ্যাটলেটিকো কোচ দিয়েগো সিমিওনের লিভারপুল ম্যানেজার জুরগেন ক্লপের সঙ্গে ম্য়াচ শেষে হাত না মেলানো, গত বছর লিভারপুলকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে ছিঁটকে দেওয়া, সব মিলিয়ে ম্যাচে আলাদা মাত্রা যোগ হয়েছিল।

শুরু থেকেই ঘরের মাঠে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে ঝাঁপায় লিভারপুল। দুই দলের মধ্যে খেলার মধ্যেই কড়া ট্যাকেল, কথা কাটাকাটি ম্যাচের ঝাঁঝ বাড়ায়। তবে ম্যাচের দখল ছিল লিভারপুলের হাতেই এবং মাদ্রিদের এদিন শুরুতেই দুই গোলের লিড নিয়ে নেয় রেডসরা। ১৩ মিনিটে ট্রেন্ট আলেকজান্ডার-আর্নল্ডের নিখুঁত ক্রস থেকে হেডে গোল করে লিভারপুলকে এগিয়ে দেন দিয়েগো জোটা। এরপর ২১ মিনিটে ট্রেন্টের শট সাদিও মানের পায়ে চলে আসে, যা থেকে ওয়ান টাচে গোল করে স্কোর ২-০ সেনেগাল তারকা।

এরপরেই ফের মাদ্রিদের মতো কামব্যাক করার প্রয়াশ শুরু করে অ্যাটলেটিকো। তবে ৩৬ মিনিটে তাদের এক কর্ণার থেকে লিভারপুলের প্রতিআক্রমণের সময় মানেকে ফাউল করে খানিকটা বিতর্কিতভাবেই লাল কার্ড দেখেন অ্যাটলেটিকো ডিফেন্ডার ফিলিপে। ১০ জনে নেমে গিয়ে আরও তেড়ে ফুঁড়ে গোলের চেষ্টা করলেও তা সম্ভব হয়নি অ্যাটলেটির। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর ১০ মিনিটে কমপক্ষে তিনটি সহজ গোল করার সুযোগ হারায় লিভারপুল। ভাগ্যক্রমে লুইস সুয়ারেজ অ্যাটলেটিকোর হয়ে গোল করলেও তা অফসাইডে বাতিল হয়। জোটার একটি গোলও অফসাইডে বাতিল হয়। ম্যাচ লিভারপুলের পক্ষে ২-০ স্কোরলাইনেই শেষ হয়।

তবে গ্রুপের আরেক ম্যাচে সাত বারের চ্যাম্পিয়ন এসি মিলান ফের আটকে গেল পোর্তোর কাছে। ২০১৩-১৪ সালের পর প্রথমবার ইউরোপের সেরা ক্লাব প্রতিযোগিতায় মিলানের প্রত্যাবর্তন ঘটলেও তারা নিজেদের দাপট দেখাতে ব্যর্থ হয়েছে। এদিনও মাত্র ছয় মিনিটেই লুইস ডিয়াজের গোলে পিছিয়ে পড়ে রসোনেরিরা। তবে পোর্তো ডিফেন্ডার এম্বেবার আত্মঘাতী গোলে প্রথম পয়েন্ট লাভ করে মিলান। অ্যাটলেটিকো হারায় তাদের পরের দুই ম্যাচ জিতে পরের রাউন্ডে যাওয়ার ক্ষীণ আশা রয়েছে মিলানের। তবে চারটের মধ্যে চারটিই জিতে, দুই ম্যাচ বাকি থাকতেই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে পরের পর্বে কোয়ালিফাই করল লিভারপুল। পোর্তো পাঁচ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় এবং চার পয়েন্ট নিয়ে অ্যাটলেটকো তিনে রয়েছে।

বন্ধ করুন