বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পর সকলের উদ্দেশ্যে প্রথম বার্তা ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেনের
ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেন। ছবি- রয়টার্স। (Pool via REUTERS)

হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পর সকলের উদ্দেশ্যে প্রথম বার্তা ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেনের

  • ফিনল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচে প্রথমার্ধের শেষের দিকে হঠাৎ করেই মাঠে পরে যান এরিকসেন।

এ বারের ইউরোয় ফিনল্যান্ডের বিরুদ্ধে ডেনমার্কের প্রথম ম্য়াচে হঠাৎই প্রথমার্ধের শেষের দিকে মাঠের মধ্যেই পড়ে যান ড্যানিশ তারকা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেন। সাময়িক প্রচেষ্টার পর তাঁর প্রাণ রক্ষা করা সম্ভব হয় এবং তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

মাঠেই জ্ঞান ফিরে পান এরিকসেন। হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার কথা জানা গেলেও পরিস্থিতির গভীরতা ও তাঁর শারীরিক অবস্থা নিয়ে বিশেষ কোন তথ্য না পাওয়ায়, বেশ কিছুটা উদ্বিগ্নেই ছিল গোটা বিশ্ব। তবে অবশেষে অপেক্ষার অবসান ঘটাল। আপামর জনসাধারণের উদ্দেশ্যে ড্যানিশ মিডফিল্ডার জানালেন তিনি ঠিক আছেন।

ইতালিয়ান সংবাদপত্র Gazzetta dello Sport-কে তাঁর এজেন্ট মারফত এরিকসেন জানান, ‘ধন্যবাদ। আমি হাল ছাড়ছি না। আমি আগের থেকে এখন অনেকটাই সুস্থ অনুভব করছি। তবে আমি জানতে চাই আমার কী হয়েছিল। সকলে আমার জন্য যা করেছে, তার জন্য আমি তাঁদের ধন্যবাদ জানাতে চাই।’

এরিকসেন আপাতত হাসপাতালেই থাকছেন। তাঁর বাবা-মা ও স্ত্রী সকলে সেখানেই তাঁর সঙ্গে রয়েছেন বলে তাঁর এজেন্টের তরফে জানানো হয়। ‘এখন ওর শুধুমাত্র বিশ্রামের দরকার। ওর বাবা-মা এবং স্ত্রীও ওর পাশে রয়েছেন। আপাতত ও পর্যবেক্ষণেই থাকবে। তবে যাই হোক না কেন, ও বেলজিয়ামের বিরুদ্ধে দলের সতীর্থদের জন্য গলা ফাটাতে ইচ্ছুক।’ বলেন এরিকসেনের এজেন্ট।

তাঁর এজেন্ট মারফত প্রথম বার্তার বেশ কয়েকঘন্টার পরে নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টেও একটি পোস্ট করে সকলকে ফের ধন্যবাদ জানান এরিকসেন। পাশাপাশি দলের সতীর্থদের জন্য় গলা ফাটাতেও প্রস্তুত ২৯ বছর বয়সী এই ফুটবলার।

পোস্টে তিনি লেখেন, ‘সকলকে তাঁদের ম্যাসেজ এবং শুভেচ্ছাবার্তার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ। আমার এবং আমার পরিবারের জন্য এটি গুরুত্ব বিশাল। বর্তমান পরিপ্রক্ষিতে আমি ভাল আছি। যদিও আমার এখনও আরও কিছু পরীক্ষা-নীরীক্ষা করা হবে, কিন্তু আমি ভাল আছি। এবার আমি আমার ডেনমার্কের সতীর্থদের জন্য গলা ফাটাব।’

বন্ধ করুন